এই ক্রিকেটারকে ওয়ানডে দলে নেয়ার জন্য নির্বাচকদের সাথে তর্কে জড়ান কোহলি

কোহলি ২০১৭ এবং ২০১৮ সালে জিতেছেন বর্ষসেরা ক্রিকেটারের স্যার গারফিল্ড সোবার্স ট্রফি। এর মধ্যে ২০১৮ সালে একই সঙ্গে আইসিসি বর্ষসেরা টেস্ট এবং ওয়ানডে ক্রিকেটার হয়েছেন যা ইতঃপূর্বে আর কেউ হতে পারেন নি। ২০১৮ সালে রাজীব গান্ধী খেলরত্ন পুরস্কার পান যা ভারতের সর্বোচ্চ অসামরিক ক্রীড়া সম্মান।

শিখর ধাওয়ান হয়তো আসন্ন টি -টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছেন, কিন্তু তার মানে এই নয় যে অধিনায়ক বিরাট কোহলির কাছে তার গুরুত্ব কমে গেছে। টি -টোয়েন্টি থেকে বাদ পড়ার পর নির্বাচকরা ওয়ানডে থেকে ধাওয়ানকে বাদ দেওয়ার কথা ভাবছিলেন কিন্তু অধিনায়ক কোহলি নির্বাচকদের সঙ্গে একমত নন।

ক্রিকবাজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চ মাসে ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজের জন্য ওয়ানডে দলে শিখর ধাওয়ানকে অন্তর্ভুক্ত করতে কোহলিকে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছিল।

জানা গেছে, বিজয় হাজারে ট্রফিতে ভালো করতে পারা আরেক ওপেনারকে বেছে নিতে চেয়েছিলেন নির্বাচকরা। তখনই কোহলি জোর দিয়েছিলেন যে ওয়ানডে দলের জন্য ধাওয়ান অপরিহার্য।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, “এটা আলাদা বিষয় যে নির্বাচকদের সম্পূর্ণ ভিন্ন পরিস্থিতিতে (শ্রীলঙ্কা সিরিজের জন্য) ওয়ানডেতে ধাওয়ানকে অধিনায়ক হিসেবে নিয়োগ করতে হয়েছিল।

তবে, যারা জানেন তারা বলেন যে অধিনায়ক এবং তাদের মধ্যে কথা হয়। নির্বাচকরা এতটা খারাপ করেননি এবং মার্চের বৈঠকের সময় সব ঘটেছিল যখন কোহলি ধাওয়ানকে দলে চান।”

ধাওয়ানকে বর্তমানে আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে খেলতে দেখা যাবে। এমন পরিস্থিতিতে, তারা তাদের উপযোগিতা দেখানোর আরেকটি সুযোগ পাবে। আইপিএল ২০২১ এর দ্বিতীয় পর্ব ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাচ্ছে।

Related Posts

One thought on “এই ক্রিকেটারকে ওয়ানডে দলে নেয়ার জন্য নির্বাচকদের সাথে তর্কে জড়ান কোহলি

  1. Pingback: Amazing Site

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *