ধূ’মপা’ন স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর কে না জানে! তাও স্বাস্থ্যের তোয়াক্কা না করেই অবাধে চলে ধূ’মপা’ন। স্বাভাবিক ভাবেই ফুসফুসে ক্যান্সার সহ শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত বিভিন্ন রোগের সম্ভাবনা বেড়ে চলে।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন-এর তথ্য অনুযায়ী, প্রতি বছর বাংলাদেশে ৫৭ হাজারেরও বেশি মৃ’ত্যুর কারণ তামাকজাত দ্রব্য সেবন।

তবে ধূমপায়ীদের জন্য ভাল খবর দিচ্ছে সাম্প্রতিক এক গবেষণা। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘দ্য ট্রিবিউন’-এ প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, আপনার রান্নাঘরেই মজুত রয়েছে এমন দু’টি জিনিস, যা নিয়মিত খেলে ধূ’মপা’নের ক্ষতি পুষিয়ে যেতে পারে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ‘জনস হপকিনস ব্লুমবার্গ স্কুল অফ পাবলিক হেলথ’-এর গবেষকরা জানিয়েছেন, ধূ’মপা’নের পাশাপাশি যাঁরা বেশি করে আপেল ও টমেটো খান, গবেষণায় দেখা গেছে তাঁদের ফুসফুস অনেক কম ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

৬৫০ জন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির উপর একটি সমীক্ষা চালানো হয়, যাঁরা ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে ধূ’মপা’ন করেছেন। সমীক্ষায় দেখা যায়, ১০ বছরে তাঁদের ফুসফুসের যে পরিমাণ ক্ষতি হওয়ার কথা, সেটা হয়নি।

জিজ্ঞেস করলে তাঁরা জানান, প্রচুর পরিমাণে টমেটো, আপেল-সহ বিভিন্ন ধরনের ফল খেতেন তাঁরা। এটিকেই সুস্থতার চাবিকাঠি বলে জানাচ্ছেন গবেষকরা।

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

গবেষকদের মতে, প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিরা যদি প্রতিদিন গড়ে একজোড়া টমেটো এবং তিনটি করে আপেল খান, তাহলে তাঁদের ফুসফুস অন্যদের তুলনায় কম ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাজা টমেটো ও ফলের বদলে যদি প্রক্রিয়াজাত টমেটো ও ফল খাওয়া হয়, তাহলে কিন্তু কোনও উপকার হয় না।

জনস হপকিনসের সহকারী অধ্যাপক ভ্যানেসা গার্সিয়া-লারসেন বলেছেন, ‘এই গবেষণায় দেখা গেছে, যে ব্যক্তিরা ধূ’মপা’ন ছেড়ে দিয়েছেন, তাঁরা যদি ঠিকমতো ফল খান, তাহলে বয়স বাড়লেও ফুসফুসের কর্মক্ষমতা কমে যাবে না।

উল্টে ফুসফুসের সমস্যা মিটে যেতে পারে। যে ব্যক্তিদের শ্বাসকষ্টের সমস্যা আছে, তাঁদের অবশ্যই প্রচুর পরিমাণে ফল ও টমেটো খাওয়া উচিত।’

blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank
blank

By talha

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.