এক ম্যাচেই ক্যারিয়ার শেষ! প্রিয় বন্ধুর জন্য নায়ক থেকে ভিলেন হয়ে উঠলেন সূর্য কুমার যাদব

গতকাল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বিধ্বংসী পারফরমেন্সর পর থেকে চলতি সফরে ভারতীয় দলে সূর্য কুমার যাদবের জায়গাটা এক প্রকারভাবে নিশ্চিত হয়ে গেছে। তারই সাথে অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়ে যাচ্ছে ওপেনিং ব্যাটসম্যান ঈশান কিশানের ভবিষ্যৎ।

চলমান রত টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুটি ম্যাচে সূর্য কুমার ব্যাট হাতে কার্যতভাবে তিনি ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। তবে এই ম্যাচটিতে তিনি চকচকে ইনিংস খেলে রানে ফিরে আসার আভাস দিয়েছেন।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, সূর্য কুমার যাদব এই সিরিজটিতে ওপেনার হিসেবে তিনি খেলার সুযোগ পান। আর এই সুযোগটি কাজে লাগিয়েই তিনি শত্রু হিসেবে গণ্য হয়েছেন বন্ধু ঈশান কৃষাণের জন্য।

তিনি সিরিজের প্রথম দুটি ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ব্যর্থ হওয়ার পর তৃতীয় ম্যাচটিতে বিধবংসী একটি ইনিংস খেলেন। ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করছিলেন যে, সূর্ধ কুমার যাদব তৃতীয় ম্যাচে যদি ব্যাট হাতে ব্যর্থ হতেন তবে তিনি ভারতীয় একাদশেটি জায়গা হারাতেন।

বরং তার জায়গায় রোহিত শর্মার সাথে তরুণ ক্রিকেটার ঈশান কিশান ওপেনিং করার সুযোগটি পেতেন। কিন্তু সূর্যকুমারের একটি বিধবংসী ইনিংসের পর কার্যতভাবে ঈশান কিশানের দলে জায়গা পাওয়াটা দুঃস্বপ্নে পরিণত হয়।

সূর্ধকুমার যাদব এই সিরিজটিতে ওপেনার হিসেবে খেলতে নেমে তিনি প্রথম দুটি ম্যাচে মোট ৩৫ রানকরেন, এরপরই ক্রিকেট মহলে তার ব্যাটিং নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। তবে গতকাল ম্যাচে তিনি ১৭২.৭২ স্ট্রাইক রেটে 8৪ বলে ৭৬ রানের ইনিংস খেলে সমালোচকদের যোগ্য জবাব দিয়েছেন।

৭৬ রানের এই ইনিংসে তার ব্যাট থেকে ৮টি চার ও ৪টি ছন্তা আসে। আইপিএলে সূর্য কুমার যাদব ও ঈশান কিষাণ একই দলের হয়ে খেলেন এবং ক্রিকেট মহলে তীরা ভালো বন্ধু হিসেবেও বিবেচিত হন। কিন্তু ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা এখানে মন করেছেন যে, সূর্যকুমারের জন্য ঈশান কিশানের ক্যারিয়ারটা ধবংস হয়ে যেতে পারে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.