কোহলিকে প্রশংসায় ভাসিয়ে যা বললেন রোহিত

সদ্যই স্থায়ীভাবে ভারতের ওয়ানডে অধিনায়ক হয়েছেন রোহিত শর্মা। সর্বশেষ টি-২০ বিশ্বকাপের পর অধিনায়ক নির্বাচিত হন তিনি। দলের দায়িত্ব পেয়েই পূর্বসুরি কোহলিকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন রোহিত।

অধিনায়ক হওয়ার পর ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) ওয়েবসাইটের ভিডিওতে দেয়া প্রথম সাক্ষাৎকারে সাবেক নেতা কোহলির প্রতি শ্রদ্ধা-ভালোবাসা সবই ফুটিয়ে তুলেছেন রোহিত। কোহলির আক্রমণাত্মক মনোভাব তার পছন্দ বলেও জানিয়েছেন তিনি।

রোহিত বলেন, পাঁচ বছর ধরে সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছে কোহলি। যত বার মাঠে নেমেছি, সেটাই দেখেছি। প্রতিটা ম্যাচ জিততে চাইতো কোহলি।

ম্যাচ জিততে মরিয়া হয়ে থাকতো সে। সেই বার্তাটাই দলের কাছে পৌঁছে দিতো সে। তার নেতৃত্বে খেলাটা দারুণ উপভোগ করেছি। দীর্ঘদিন ধরে কোহলির সাথে খেলছি, প্রতিটা মুহূর্ত উপভোগ করেছি এবং ভবিষ্যতেও করবো।

অধিনায়কত্ব না থাকলেও, দলের সেরা ক্রিকেটার কোহলির কাছ থেকে আক্রমণাত্মক মনোভাবই চান রোহিত। তিনি বলেন, ‘অধিনায়ক হিসেবে আমরা সকলেই কোহলির আক্রমনাত্মক মনোভাব দেখেছি।

ভবিষ্যতেও সেই মনোভাবটা অব্যাহত থাকবে বলে আশা করি। সে দলের সেরা খেলোয়াড়। তার কাছ থেকে দল আরো বেশি পারফরমেন্স আশা করে।

ভারতের অধিনায়কত্ব পেয়ে নিজেকে সম্মানিত মনে করছেন রোহিত। ঠিকঠাক দায়িত্ব পালনের জন্য মুখিয়ে আছেন তিনি। রোহিত বলেন, এই দায়িত্ব পেয়ে আমি গর্বিত এবং সম্মানিত।

একটা বিশাল দয়িত্ব আমাকে দেওয়া হয়েছে। এই দায়িত্ব পেয়ে আমি খুবই খুশি। সাদা বলের ক্রিকেটে দেশকে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য আমি মুখিয়ে আছি।

রোহিত এটিও জানেন, ভারতের জার্সিতে খেলতে নামলে কতটা চাপ সামলাতে হয়। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ভারতের হয়ে খেলা মানে বড় চাপ সামলাতেই হবে। এটা তো জানা কথা।

চাপ সব সময় থাকবে। কারণ বাইরে আলোচনাটা চলতেই থাকবে। তবে আমাদের মূল কাজ নিজেদের কাজটা ঠিকভাবে করা। সেই কাজটা হল মাঠে নেমে খেলাটা জেতা। নিজের খেলাটা মাঠে মেলে ধরা। কে কি বলছে, সেটি গুরুত্বপূর্ণ নয়।

বাইরের আলোচনা নিয়ে মাথা ঘামাতে চান না রোহিত। তিনি বলেন, শুধু অধিনায়ক নয়, ক্রিকেটার হিসেবেও আমি একটা কথা বিশ্বাস করি। বাইরে অনেক আলোচনা চলে, কথা হয়।

কিন্তু আমাদের সে সব নিয়ে মাথা ঘামালে চলবে না। বিষয়গুলো আমাদের হাতে থাকে না। আমার লক্ষ্য থাকে সব কিছু দূরে সরিয়ে রেখে নিজের কাজটা করে যাওয়া।

শুধুমাত্র নিজের মধ্যেই নয়, দলের খেলোয়াড়দের মধ্যেও বাইরের আলোচনা নিয়ে মাথা না ঘামানোর পরামর্শ দিয়েছেন রোহিতের। তিনি বলেন, আমি এই বার্তাটাই দলকে দিয়েছি। আমরা যখন খুব বড় প্রতিযোগিতায় খেলতে যাব, তখন অনেক কথাবার্তা হবে, অনেক আলোচনা হবে। সে সব মাথায় রাখলে চলবে না।

অধিনায়ক হিসেবে নিজের পরিকল্পনার কথাও পরিস্কার করেছেন রোহিত। তিনি বলেন, ‘ভারতকে আমি বেশি নেতৃত্ব দেওয়ার সুযোগ পাইনি। যখনই পেয়েছি যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের চেষ্টা করেছি। যার যার দায়িত্ব ক্রিকেটারদের বুঝিয়ে দিয়েছি।’

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *