কোহলির অধিনায়কত্ব ছাড়ায় দুঃখ পাওয়ার ভণিতা করলেও মনে খুশি রোহিত রাহুল মন্তব্য পাক ক্রিকেটারের

সম্প্রতি টেস্ট ক্রিকেটেও অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন ভারতীয় ক্রিকেটার বিরাট কোহলি। এর আগে সাদা বলের ক্রিকেটে নতুনভাবে অধিনায়ক হয়েছেন ভারতীয় অভিজ্ঞ ক্রিকেটার রোহিত শর্মা।

তবে টেস্ট ক্রিকেটে অধিনায়কত্ব ছাড়ার পর ক্রিকেটমহলে এখন চরম উত্তেজনার বাতাস প্রবাহমান। বিরাট কোহলির উদ্দেশ্যে একাধিক ক্রিকেটার ইতিমধ্যে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন। সাথে আগামী দিনে বিরাট কোহলির ব্যাট হাতে বিধ্বংসী হয়ে ওঠার প্রত্যাশা করেছেন ক্রিকেটাররা।

তবে পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক বিরাট প্রসঙ্গে গরম হওয়া প্রবাহিত করালেন। পাকিস্তানি ক্রিকেটার রশিদ লতিফ সরাসরি এই প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন।

ইউটিউব চ্যানেলে বিরাট প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে উল্লেখ করেন, ভারতীয় দলে বিরাট কোহলি অধিনায়কত্ব ছাড়ার কারণে সবচেয়ে বেশি লাভবান হয়েছেন রোহিত শর্মা এবং কে এল রাহুল। তাই বিরাট বিদায়ের পর রোহিত শর্মার নাটকীয় টুইট অতি অসহ্য।

যদি বিরাট কোহলি এতই ভালো অধিনায়ক ছিলেন তাহলে অধিনায়কত্ব না ছাড়ার জন্য তিনি কেন বিরাটকে ব্যক্তিগতভাবে ফোন করেননি। কিংবা সাদা বলের ক্রিকেটে কেন বিরাটের পরবর্তী অধিনায়ক হিসেবে তিনি দায়িত্ব নিলেন। আসল ঘটনা সবাই বোঝে।

তবে প্রত্যক্ষ করলে বোঝা যাবে এতে কি আদৌ ভারতীয় ক্রিকেট লাববান হলো?

রশিদ লতিফ আরো বলেন, বিরাট পরবর্তী ভারতীয় অধিনায়ক কে হবেন? রোহিত শর্মা, সে তো পুরোপুরি আনফিট। এমনকি গুরুত্বপূর্ণ সিরিজ থেকে নিজেকে বারবার পিছিয়ে নিতেও দেখা গেছে তাকে। অন্যদিকে লোকেশ রাহুল অধিনায়ক হওয়ার যোগ্য নয়।

তাহলে বিরাট পরবর্তী ভারতীয় দলের যোগ্য উত্তরসূরি কে? আসলে বিরাট কোহলিকে ক্ষমতাচ্যুত করাই ছিল মূল উদ্দেশ্য। তবে এর ফলে কি ভারতীয় ক্রিকেটের সুদিন আসবে? প্রশ্ন করেছেন প্রাক্তন ক্রিকেটার।

উল্লেখ্য, বিরাট কোহলির অধিনায়কত্ব ছাড়ার পর বর্তমানে সাদা বলের নেতৃত্বে রয়েছেন ওপেনিং ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা। তাছাড়া টেস্ট ক্রিকেটের ক্ষেত্রে দলনেতা হওয়ার দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছেন লোকেশ রাহুল। তাই রশিদ লতিফের বক্তব্য অনেকটাই যুক্তিসঙ্গত বলে মনে করছেন বিরাট প্রেমীরা।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *