কোহলির ভুলে ক্ষিপ্ত গাভাস্কার, কিছুতেই বরদাস্ত করা হবে না এমন কর্মকান্ড

ভারতীয় ক্রিকেটে অশান্তির আবহ বর্তমান শেষ কিছু সময় ধরে। প্রথমে, বিরাট কোহলির তিনটি ফরম্যাটেই অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেওয়া, তারপর দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ভারতকে ২-১ ব্যবধানে হেরে ২৯ বছরের খরা কাটানোর সুযোগ হাতছাড়া।

এরপর ওয়ান ডে সিরিজের প্রথম ম্যাচেও ৩১ রানে হেরেছে ভারতীয় দল। এই সবকিছুর মধ্যেই বিরাটের একটি ভুল নিয়ে সরব প্রাক্তন ক্রিকেটার সুনীল গাভাস্কার।

বিরাট কোহলির নেতৃত্বে শেষ টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ৭ উইকেটে হেরেছে ভারতীয় দল। এই ম্যাচে বিরাট মেজাজ হারিয়ে একটি অনৈতিক কাজ করেন। আসলে, কেপটাউনে খেলা তৃতীয় টেস্ট ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় ইনিংসের সময় ভারতের হয়ে বোলিং করছিলেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। এরপর তার একটি বল গিয়ে লাগে দক্ষিণ আফ্রিকান অধিনায়ক ডিন এলগারের প্যাডে। এরপর ভারতীয় খেলোয়াড়দের আবেদনে মাঠের আম্পায়ার তাকে আউট দেন।

তবে ডিন এলগার এই সিদ্ধান্তের রিভিউ নেন এবং হক আইতে দেখা যায় বল স্টাম্পের উপর দিয়ে যাচ্ছে। ভারতীয় দলের ক্রিকেটারদের এই সিদ্ধান্ত পছন্দ হয়নি। সেই সময় অধিনায়ক বিরাট কোহলি, রবিচন্দ্রন অশ্বিন এবং কেএল রাহুলও এই সিদ্ধান্ত নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্য দেন।

তারপর স্টাম্পের মাইকের কাছে গিয়ে বিরাট কোহলি সম্প্রচারকারীর উপর নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেন। পরোক্ষভাবে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগও করেন তিনি।

এই গোটা বিতর্কে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সুনীল গাভাস্কার। স্পোর্টস টুডে-তে গাভাস্কার বলেন, ‘একজন খেলোয়াড় খেলার মাঠে মেজাজ হারাতে পারেন। ফুটবল, ক্রিকেট বা অন্য খেলা যাই হোক না কেন, খেলোয়াড় তার মেজাজ হারিয়ে ফেলে।

আমি মনে করি না যে কোহলি যে ইঙ্গিত করার চেষ্টা করছিল সেটা কোনওভাবেই মানা যায়, কিন্তু যদি একজন বিদেশী অধিনায়ক এখানে আসে এবং তিনি একই কাজ করেন তাহলে আমাদের ভারতীয়দের সেটা নিশ্চয়ই ভালো লাগবে না। তবে বিরটদের এমন কর্মকান্ড কোন মেনে নেওয়া উচিত নয় বলেও মনে করেন প্রাক্তন এই ক্রিকেটার

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *