কোহলি রোহিতকে হতাশ করে এখন পর্যন্ত টি-টোয়েন্টির সেরা একাদশ প্রকাশ, জায়গা হয়নি শচিন-সেহবাগের

অতীতে ভারতীয় ক্রিকেটে দুর্দান্ত খেলোয়াড়রা এসেছেন কিন্তু অনেকেই এই সীমিত ওভারের খেলাকে মানিয়ে নিতে পারেননি। ২০০৭ সালে উদ্বোধনী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে ভারতীয় দল জয়লাভ করে।

যদিও এর পর ভারতীয় দল একটিও বিশ্বকাপের শিরোপা জিততে পারেনি কিন্তু কিছু খেলোয়াড় টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে অসাধারণ প্রতিভা তৈরি করেছেন। এখনও পর্যন্ত ভারতীয় ক্রিকেটের সেরা টি-টোয়েন্টি একাদশ দলটি এবার দেখে নেওয়া যাক:

□ ওপেনার: রোহিত শর্মা ও কে এল রাহুল

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে রোহিত শর্মা একজন নিশ্চিত কিংবদন্তি খেলোয়াড়। এই ফরম্যাটে তার সর্বাধিক চারটি সেঞ্চুরি রয়েছে। এছাড়া তিনি ৩৫ বলে দ্রুততম সেঞ্চুরির মালিক।

এর পাশাপাশি দ্বিতীয় ওপেনার হিসেবে কে এল রাহুল ছাড়া আর কেউ হতে পারে না। গত কয়েক বছরে তারপর পারফর্ম চোখে পড়ার মতো। এই সীমিত ওভারের খেলায় তার নামেও দুটি সেঞ্চুরি রয়েছে।

□ মিডিল অর্ডার: বিরাট কোহলি, সুরেশ রায়না ও যুবরাজ সিং

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। টেস্ট বা ওয়ানডের মতোই এই ফরম্যাটেও তার ব্যাটিং গড় ৫০-র ঊর্ধ্বে। এছাড়া তার অধিনায়কত্বে ভারতীয় দল বড় সাফল্য পায়।

সুরেশ রায়না তেমনভাবে সাফল্য অর্জন করতে পারেননি, কিন্তু এই পজিশনে তাকে বাদ দেওয়ার সঠিক হবে না। একমাত্র ভারতীয় খেলোয়াড় হিসেবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন রায়না।

যুবরাজ সিং এই সীমিত ওভারের খেলায় একজন বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান। স্টুয়ার্ট ব্রডকে এক ওভারে ৬টি ছক্কা হাঁকিয়ে সিক্সার কিং নামে পরিচিত হয়েছিলেন। এ ছাড়াও বহু স্মরণীয় ইনিংস খেলে ভারতীয় দলকে ম্যাচ জিতেয়েছেন।

□ উইকেট রক্ষক: মহেন্দ্র সিং ধোনি

মহেন্দ্র সিং ধোনি ভারতীয় ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় উজ্জ্বল নক্ষত্র। যার মস্তিষ্কপ্রসূত সিদ্ধান্তগুলি ভারতীয় দলকে অনেক হেরে যাওয়া ম্যাচগুলো জিততে সহায়তা করেছে।

২০০৭ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এই অনভিজ্ঞ খেলোয়াড় নেতৃত্ব কাঁধে নিয়ে ভারতীয় দলকে চ্যাম্পিয়ন করেছিলেন। এই সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের খেলায় উইকেটের পিছনে দাঁড়িয়ে সর্বাধিক ডিসমিসাল করার রেকর্ড রয়েছে ধোনির নামে।

□ অলরাউন্ডার: হার্দিক পান্ডিয়া

ভারতীয় অলরাউন্ডার তথা ‘হার্ড হিটার’ হার্দিক পান্ডিয়াকে এই তালিকায় রাখা হয়েছে। একজন আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যান হওয়ার পাশাপাশি বল হাতেও উইকেট নেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে তার। বর্তমান সময়টা তার ভালো না গেলেও রবীন্দ্র জাদেজার তুলনায়

এখনও পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ভালো পারফরম্যান্স রয়েছে তার। ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বিপক্ষে শেষ ওভারে অসাধারণ বোলিং করে দলকে জিতিয়েছিলেন।

□ স্পিনার: রবীচন্দ্রন অশ্বিন ও কুলদীপ যাদব

রবীচন্দ্রন অশ্বিন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের অন্যতম সেরা স্পিনার। দীর্ঘদিন পর এই সীমিত ওভারের খেলায় প্রত্যাবর্তন করেছেন তিনি। সম্প্রতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তাকে পুরনো ছন্দে দেখা গেছিল।

অন্যদিকে বাঁহাতি স্পিনার কুলদীপ যাদবকে রাখা হয়েছে। বর্তমানে টিম নির্বাচকেরা তাকে অবহেলা করলেও তিনি ২৩টি ম্যাচে ৪১টি উইকেট নিয়েছেন।

□ ফাস্ট বোলার: ভুবনেশ্বর কুমার ও জসপ্রীত বুমরাহ

বোলিং বিভাগে ভুবনেশ্বর কুমার ও জসপ্রীত বুমরাহর জুটি অসাধারণ। যদিও ভুবনেশ্বর কুমার একজন ভাল উইকেট গ্রহীতা না হলেও প্রতিপক্ষ দলকে কম রানে বেঁধে রাখতে পারেন।

অন্যদিকে এই সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের সর্বকালের সেরা ভারতীয় ফাস্ট বোলার জসপ্রীত বুমরাহ এবং সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীও। কোনো ব্যাটসম্যানই তার মুখোমুখি হতে চাননা। এছাড়া ডেথ ওভারে প্রতিপক্ষ দলের রান আটকে দেওয়া এবং উইকেট নেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে তার।

☞ ভারতের দলের সেরা টি-টোয়েন্টি একাদশ:
রোহিত শর্মা, কে এল রাহুল, বিরাট কোহলি, সুরেশ রায়না, যুবরাজ সিং, মহেন্দ্র সিং ধোনি (অধিনায়ক ও উইকেট রক্ষক), হার্দিক পান্ডিয়া, রবীচন্দ্রন অশ্বিন, কুলদীপ যাদব, ভুবনেশ্বর কুমার, জসপ্রীত বুমরাহ

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *