ক্রিকেট ছেড়ে অভিনয় জগতে পা রাখেন ৫ ভারতীয় ক্রিকেটার, দুজন বিশ্বকাপজয়ী

ক্রিকেট ও বলিউডের মধ্যে একটা আলাদা সম্পর্ক রয়েছে। দুটি ভিন্ন প্ল্যাটফর্ম হলেও অভিনেতারা ক্রিকেটারদের বায়োপিকে অভিনয় করছেন আবার অন্যদিকে দেখা গেছে কিছু খেলোয়াড় ক্রিকেট ছাড়ার পর অভিনয় জগতে পা রেখেছিলেন।

বর্তমানে কিছু কিছু খেলোয়াড় সোশ্যাল মিডিয়ায় ও বিভিন্ন বিজ্ঞাপনে তাদের অভিনয় দক্ষতা দেখিয়েছেন। সম্প্রতি ইরফান পাঠানকে একটি দক্ষিণী মুভিতে দেখা যাবে এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যে ৫ ভারতের ক্রিকেটার বলিউড সিনেমায় অভিনয় করেছেন, এবার তাদের সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক:

১) সন্দীপ পাটিল:

প্রাক্তন ভারতীয় অলরাউন্ডার সন্দীপ পাটিল পিঞ্চ হিটার, মিডিয়াম পেসার ও দুর্দান্ত ফিল্ডিং ছাড়াও একজন পপ গায়ক ও সিনেমায় অভিনয় করেছেন।

১৯৮৩ বিশ্বকাপ জয়ের পর প্রথম ‘কভি আজনাবি থা’ চলচ্চিত্রে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন। তার সহ ক্রিকেটার সৈয়দ কিরমানি খলনায়কের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন।

ছবিটি ১৯৮৫ সালে মুক্তি পায়। সিনেমার শুরুতে একটি দুর্দান্ত গল্প দিয়ে শুরু হলেও শেষ পর্যন্ত ফ্লপ হয়েছিল। এরপর পাটিলের বলিউডের ক্যারিয়ার গড়ার স্বপ্নও ভেঙ্গে যায়।

২) অজয় জাদেজা:

প্রাক্তন ভারতীয় দলের স্টাইলিশ ব্যাটসম্যান অজয় জাদেজাও ক্রিকেট ছাড়ার পর সিনেমা জগতে পা রেখেছিলেন। ভারতের হয়ে অনেক স্মরণীয় ইনিংস খেলা এই ব্যাটসম্যান সুশান্ত সিং রাজপুত অভিনীত ‘কে পো চে’ ছবিতে অজয় জাদেজা একটি ক্যামিও চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।

জাদেজার প্রথম অভিনীত সিনেমা ছিল সানি দেওল ও সুনীল শেঠির বিপরীতে ‘খেল’ চলচ্চিত্রে। এছাড়াও তিনি ‘পাল পাল দিল কে পাস’ ছবিতে অভিনয় করেছেন।

৩) বিনোদ কাম্বলি:

শচীন টেন্ডুলকারের সাথে ক্যারিয়ার শুরু করা বিনোদ কাম্বলির জীবন কোন সিনেমার চেয়ে কম নয়। তিনি প্রথম ভারতীয় যিনি দ্রুততম টেস্ট ক্রিকেটে ১০০০ রানের গণ্ডি পার করেছেন, এই রেকর্ড আজও কারো পক্ষে ভাঙ্গা সম্ভব হয়নি।

খুব অল্প সময়ে তার ক্রিকেট ক্যারিয়ার শেষ হলে চলচ্চিত্রে মনোনিবেশ করেন। বিনোদ কাম্বলির ‘আরথ” চলচ্চিত্র দিয়ে তার অভিনয় জীবন শুরু। তারপরে তাকে ‘পাল পাল দিল কে পাস’ এবং কন্নড় চলচ্চিত্র ‘বেট্টাঙ্গারে’তে দেখা যায়।

৪) সলিল আনকোলা:

প্রাক্তন ভারতীয় ফাস্ট বোলার সলিল আনকোলা ১৯৮৯ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে তার ক্রিকেট অভিষেক ম্যাচ খেলেছিলেন। এটি ছিল তার প্রথম ও শেষ টেস্ট ম্যাচ।

এরপর তিনি ক্রিকেট ছেড়ে চলচ্চিত্র জগতে পা রাখেন। সঞ্জয় দত্ত অভিনীত ‘কুরুক্ষেত্র’ দিয়ে অভিনয় শুরু করেছিলেন সলিল আনকোলা। তিনি ‘ফাদার’ এবং ‘চোরা হ্যায় তুমনে’ ছবিতেও কাজ করেছিলেন।

৫) এস শ্রীসন্থ:

ভারতের ফাস্ট বোলার এস শ্রীসন্থ, যিনি কেরালা এক্সপ্রেস নামে পরিচিত। ২০০৭ সালে টি-২০ বিশ্বকাপ এবং ২০১১ সালে বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় দলের অংশ ছিলেন। এরপর ২০১৩ আইপিএল স্পট ফিক্সিং মামলায় তাকে আজীবন নিষিদ্ধ করা হয়।

এরপর তিনি অভিনয় ও রাজনীতি জগতে ক্যারিয়ার গড়ার কথা ভাবেন। বলিউড ছবি ‘অ্যানাউবার’ দিয়ে বড় পর্দায় পা রেখেছিলেন। এরপর তিনি আরও ২টি চলচ্চিত্রে করেছেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *