না জানি কত রকম অ’বাক করা ঘটনার সাক্ষী থাকে এই সোশ্যাল মিডিয়া। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া বিভিন্ন ঘটনা আমাদের কখনও কখনও অবা’ক করে তোলে।

কখনো বার হত’ভম্ব বা বিস্মিত করে তোলে। সোশ্যাল মিডিয়া আজকাল বিনোদনের অন্যতম কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তবে শুধু বিনোদন নয় বিভিন্ন নজিরবিহীন ঘটনা ঘটতে দেখা যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। সোশ্যাল মিডিয়া এমন একটি প্লাট’ফর্ম যেখানে সমস্ত রকমের জিনিসেরই দেখা মেলে।

কিছু কিছু ভিডিও যেমন আমাদের প্রতিভার সন্ধান দেয় কিছু কিছু ভিডিও ঠিক সেই রকমই আমাদের অনু’প্রেরণা যোগায়।

সামাজিক শিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলে ঠিক সেরকমই কিছু কিছু ভিডিও আমাদের ভীষণভাবে অ’বাকও করে।সম্প্রতি সেরকমই একটি ঘটনা ঘটতে দেখা গেলো তামিলনাড়ুতে।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে একটি গাছের কোটর থেকে ছেলে মেয়ে সহ প্রায় ১৪ জন একই সাথে পরপর বেরিয়ে আসছেন।

অবাক করা বিষয় এই যে একটি গাছের কোটরে একসাথে কতটা জায়গা থাকতে পারে যে সেখানে একসাথে পূর্ন’বয়স্ক ১৪ জন মানুষ থাকতে পারে।

ভিডিওটি দেখে অনেকেই এর স’ত্যতা সম্পর্কে স’ন্দেহ প্রকাশ করেছেন কমে’ন্ট বক্সে। কিছু কু-রু-চি-কর মন্ত্যব্য লক্ষ্য করা গেছে।

আবার অনেকে এমন বলেছেন যে নিশ্চয়ই অন্যপ্রান্তে কোন ফাঁকা জায়গা আছে। যা দিয়ে ওই মানুষ গু-লি সেখানে ঢুকে অপরপ্রান্ত দিয়ে বেরিয়ে আসছে।

সূত্র অনুযায়ী যা জানা যাচ্ছে তাতে ভিডিওটি আমাদের দেশেরই তবে পশ্চিমবঙ্গের না। যাইহোক স’ত্যতা যা’চাই আপাতত না হলেও ভিডিওটি চরম ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

কয়েক মাস আগে ল’কডাউন এর মধ্যেই SS Tamil Radio নামের একটি চ্যা’নেল থেকে ভিডিওটি শে’য়ার করা হয়। ঘটনাটি তামিলনাড়ুর হতে পারে বলে মনে করছেন অনেকে।

গাছের গুঁড়ির ভিতর থেকে এভাবে যুবক যুবতীদের বেরিয়ে আসতে দেখে হত’বাক সকলে। তারা সেখানে কেন গিয়েছিল ও কি করছিল তা নিয়ে নেটদুনিয়ায় শুরু হয়েছে ঘোর জ’ল্পনা।

অদ্ভু’ত কাণ্ডের এই ভিডিওটি গত এপ্রিল মাসে প্রকাশ্যে আসে। যা মুহূর্তেই তুমুল সাড়া জাগায় নেটদুনিয়ায়। কয়েক দিনের মধ্যেই ভাইরাল হয়।

এখনো অবধি ভিডিওটি প্রায় ৪ কোটি ৬০ লাখের বেশি জন দেখেছে যা এক কথায় রেক’র্ড। পছন্দ করেছেন প্রায় ৬৬ হাজার জন।

তারা সেখানে পিকনিক করতে গিয়েছিল অথবা সেখানে শিক্ষামূলক ভ্রমণে গিয়েছিল এমনটাও ক’মেন্ট করেছেন অনেকে। প্রায় ৫০ হাজার জন শে’য়ার করেছেন ভিডিওটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.