তৃতীয় টেস্টে মাত্র ১৪ রান করলেই রাহুল দ্রাবিড়কে টপকে নতুন এক ইতিহাস রচনা করবেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি

রাহুল দ্রাবিড় একজন সাবেক ভারতীয় ক্রিকেট খেলোয়াড়। তিনি ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের জাতীয় টেস্ট ও একদিনের আন্তর্জাতিক দলের অধিনায়ক ছিলেন।। বর্তমানে তিনি জাতীয় দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করছেন

২০১৩ সালে প্রথমবার তিনি ওয়ান ডে ব্যাটসম্যানদের আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ের প্রথম স্থানে পৌঁছে যান, টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটেও কোহলি সাফল্য এসেছে এবং আইসিসি ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টিতে দু-দুবার তিনি ম্যান অফ দ্য টুর্নামেন্ট হয়েছিলেন (২০১৪ এবং ২০১৬ সালে)।

২০১৪ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনির টেস্ট অবসর গ্রহণের পর কোহলি ওয়ানডে দলের সহ-অধিনায়ক নিযুক্ত হয়ে টেস্ট অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পান।

২০১৭ সালের প্রথম দিকে, ধোনি অধিনায়ক পদ থেকে পদত্যাগ করার পরে তিনি ওয়ানডেতেও অধিনায়ক হন। ওয়ানডে ক্রিকেটে সবচেয়ে দ্রুততম ব্যাটসম্যান হিসেবে ১০,০০০ এবং ১১,০০০ রানের রেকর্ডটি তারই করা, যথাক্রমে ২০৫ ও ২২২ রান করে ছিলেন।

কোচ দ্রাবিড়ের সামনেই ব্যাটার দ্রাবিড়কে টপকে যাওয়ার সুযোগ বিরাট কোহলির সামনে। আর মাত্র ১৪ রান করলেই দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে সর্বাধিক রান করা ভারতীয়ের তালিকায় প্রথম স্থানে উঠে আসবেন ভারত অধিনায়ক।

যে তালিকায় এখনও পর্যন্ত শীর্ষে রয়েছেন ভারতীয় দলের কোচ ও প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক রাহুল দ্রাবিড়। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ২২ ইনিংসে টেস্টে মোট ৬২৪ রান করেছেন দ্রাবিড়। সেখানে বিরাটের ঝুলিতে এখনও পর্যন্ত মাত্র ১২ ইনিংসে সংগ্রহ ৬১১ রান।

কেপটাউনে ২ ইনিংস খেলার সুযোগ পাবেন বিরাট দ্রাবিড়কে টেক্কা দেওয়ার জন্য। রাহুল তাঁর কেরিয়ারে টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকায় ১টি শতরান ও ২টো অর্ধশতরান হাঁকিয়েছেন। অন্যদিকে বিরাটের ঝুলিতে ম্যান্ডেলার দেশে রয়েছে ২ট সেঞ্চুরি ও ২টো হাফ সেঞ্চুরি।

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে টেস্টে সর্বাধিক রান সংগ্রাহকের তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন সচিন তেন্ডুলকর। ১৫ ম্যাচে মোট ১১৬১ রান করেছেন তিনি। গড় ৪৬.৪৪।

তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রাহুল দ্রাবিড় ও তৃতীয় স্থানে রয়েছেন আরেক প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার ভিভিএস লক্ষ্মণ। ১৮ ইনিংসে তাঁর ঝুলিতে রয়েছে ৫৫৬ রান।

এদিকে, আগামীকাল থেকে শুরু ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা তৃতীয় টেস্ট। আর সেই ম্যাচেই ভারতের তারকা পেসার মহম্মদ শামির সামনে এবার বিরাট এক মাইলফলক ছোঁয়ার হাতছানি।

পঞ্চম ভারতীয় বোলার হিসেবে টেস্টে প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে ৫০ উইকেট নেওয়ার নজির গড়তে পারেন বাংলার পেসার। চলতি সিরিজেই টেস্টে ২০০ উইকেট নেওয়ার নজির গড়েছেন শামি।

এই মুহূর্তে সিরিজে শামির উইকেট সংখ্যা ১১। জোহানেসবার্গে তিনি তিনটি উইকেট নিয়েছিলেন। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ২০ টি ইনিংসে বল করে শামির সংগ্রহ ৪৫টি উইকেট।

কেপটাউনে আর মাত্র ৫টি উইকেট নিলেই শামি নজির গড়ে ফেলবেন। শ্রীনাথের পরে দ্বিতীয় ভারতীয় পেসার হিসেবে শামি প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে টেস্টে ৫০টি উইকেট নেওয়ার নজির গড়বেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *