দক্ষিণ আফ্রিকা বধে দ্বিতীয় টেস্টের আগে কঠোর অনুশীলনে টিম ইন্ডিয়া

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে রওনা হওয়ার আগেই স্বস্তির হাওয়া ভারতীয় শিবিরে। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডের সিদ্ধান্তে বিরাট কোহলিরা খুশি হবেন নিশ্চিত।

করোনার ওমিক্রন প্রজাতি নিয়ে আশঙ্কার চোরা স্রোতের মাঝেই আয়োজিত হতে চলেছে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা দ্বি-পাক্ষিক ক্রিকেট সিরিজ। তাই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ভারতীয় ক্রিকেটারদের অত্যন্ত কঠোর করোনা প্রোটোকল মেনে চলতে হবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছিল।

বাস্তবে বায়ো-বাবল নিশ্ছিদ্র করার দিকে বাড়তি নজর দেওয়া হলেও ভারতীয় দলকে কোয়ারান্টাইনে হোটেলবন্দি করা রাখার পক্ষপাতি নয় ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা।

প্রথমবার দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ইতিহাস গড়ার সুবর্ণ সুযোগ রয়েছে বিরাট কোহলি এবং তার কোম্পানিদের সামনে। তাই এই সুযোগ কোনরকমে হাতছাড়া করতে রাজি নয় ভারতীয় ক্রিকেট দল।

সেঞ্চুরিয়ানে অনুষ্ঠিত হওয়া প্রথম টেস্টে ভারত ১১৩ রানের বিশাল ব্যবধানে জয় তুলে নিয়ে ইতিমধ্যে সিরিজে ১-০ ব্যবধান করে নিয়েছে। আগামী ৩ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট। আর তার জন্য জোহানেসবার্গের ওয়ান্ডারার্স স্টেডিয়ামে অনুশীলনে নেমে পড়ল টিম ইন্ডিয়া।

লক্ষ্য এখন একটাই, প্রোটিয়া ক্রিকেটারদের ফর্মে ফেরার আগেই চরম ভাবে তাদের শিবিরে আঘাত করা। সামনে দুটি টেস্টের একটিতে জয় নিশ্চিত করতে পারলে প্রথমবারের মতো দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ইতিহাস রচনা করতে পারে বিরাট কোহলি এন্ড কোম্পানি।

সেঞ্চুরিয়ানে প্রথম টেস্ট জেতার আনন্দ এবং নতুন বছরের উদযাপন পিছনে সরিয়ে রেখে আগামীকাল অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের জন্য অনুশীলন শুরু করেছে ভারতীয় ক্রিকেটাররা। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের তরফ থেকে প্রকাশিত একটি ভিডিওতে এমনই দেখা গেছে।

অধিনায়ক বিরাট কোহলি, গত ম্যাচের ‘ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ’ কে এল রাহুল, জসপ্রীত বুমরাহ সহ একাধিক ক্রিকেটাররা ওয়ার্ম আপ করতে ব্যস্ত। এই সিরিজ বিরাট কোহলির জন্য অগ্নিপরীক্ষা ছাড়া আর কিছুই নয় বলে মনে করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা।

ইতিমধ্যে প্রথম টেস্টে বিরাট কোহলি দুই ইনিংসে অফ স্টাম্পের বাইরের বলে খোঁচা দিয়ে আউট হয়েছেন। এই নিয়ে বিরাট কোহলি এই মরশুমে মোট ১০ বার অহেতুক আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন।

দীর্ঘ দুই বছর তার ব্যাট থেকে নেই কোন তিন সংখ্যার ইনিংস। নতুন বছরের শুরুতে তার ব্যাট থেকে লম্বা ইনিংস দেখতে আগ্রহী ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীরা।

অন্যদিকে আরো দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার চেতেশ্বর পুজারা এবং অজিঙ্কা রাহানে রানের খোঁজে মরিয়া হয়ে রয়েছেন। বিগত ম্যাচে একটি করে ইনিংস ভালো খেললেও এখনো পর্যাপ্ত রান আসেনি তাদের ব্যাট থেকে।

সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ তাদের জন্যেও ঠিক একই রকম বার্তা বয়ে নিয়ে আসতে চলেছে।

ইতিপূর্বে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারত প্রথম ইনিংসে ৩২৭ এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ১৭৪ রান সংগ্রহ করে। জবাবে দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম ইনিংসে ১৯৭ এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ১৯১ রানে অলআউট হয়ে যায়। ফলশ্রুতিতে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারত প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে ১১৩ রানের বিশাল ব্যবধানে ম্যাচে জয়লাভ করে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *