দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে অনিশ্চিত চার তারকা ক্রিকেটার, বিপদের মুখে ভারত

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের দল নির্বাচন নিয়ে এখনও কাটাছেঁড়া চলছে। কাকে বাইরে রেখে কাকে ঢোকানো হবে, তা খতিয়ে দেখছেন নির্বাচকরা।

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের দিনক্ষণ এগিয়ে এলেও এখনও স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়নি। জানা যাচ্ছে, একাধিক ক্রিকেটারের চোট আঘাতের জন্য সরকারিভাবে স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়নি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে শুভমান গিল, ইশান্ত শর্মা, রবীন্দ্র জাদেজা এবং অক্ষর প্যাটেল দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে অনিশ্চিত। চোটের কারণে। পুরোপুরি চোটমুক্ত হতে বেশ কিছুদিন সময় লাগবে এই চার তারকার।

ঘরের মাঠে অক্ষর প্যাটেলের লেফট আর্ম স্পিন সাম্প্রতিককালে ভারতের অন্যতম শক্তি হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে জাদেজা এবং অক্ষরকে ছাড়াই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের দল নির্বাচন করা হলে, স্পিন বিভাগে বেশ সমস্যায় পড়তে পারে ভারত। জাদেজার লিগামেন্টে চোট রয়েছে। অক্ষর প্যাটেলের আবার স্ট্রেস ফ্র্যাকচার।

জাদেজা চোটের কারণে মুম্বই টেস্টে খেলতে পারেননি। জানা যাচ্ছে, লিগামেন্টে টিয়ার থাকায় সম্ভবত অস্ত্রোপচার করতে হবে তারকা অলরাউন্ডারের। সেক্ষেত্রে পূর্ণ ফিট হয়ে উঠতে বেশ কয়েকমাস সময় লাগবে। মাঠে নামতে আইপিএল মরশুম চলে আসবে।

মুম্বই টেস্টে জাদেজার অনুপস্থিতির কারণের জন্য হাতে ফুলে যাওয়া-র কথা উল্লেখ করা হয়েছিল বিসিসিআইয়ের প্রেস রিলিজে। ঘরের মাঠে স্বপ্নের অভিষেক ঘটানো অক্ষর প্যাটলের স্ট্রেস ফ্র্যাকচার পুরোপুরি রিকভারি করতে নূন্যতম ছয় সপ্তাহ লাগবেই।

অক্ষরের সাম্প্রতিক মেডিক্যাল আপডেট বিবেচনা করে নির্বাচকরা সিদ্ধান্ত নেবেন তাঁকে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে পাঠানো হবে কিনা।

তবে অক্ষরকে বাইরে রাখতে হলে ভারতীয় নির্বাচকদের কাছে জোর অপশন- শাহবাজ নাদিম এবং সৌরভ কুমার। সৌরভ বর্তমানে ভারতীয়-এ দলের হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরেই খেলছেন।

রবিচন্দ্রন অশ্বিনই ভারতের একমাত্র স্পিনার হিসাবে প্রথম একাদশে থাকবেন। তা এখন থেকেই বলা যায়। স্বস্তির খবর, দক্ষিণ আফ্রিকায় প্ৰথম একাদশে একজন স্পিনার নিয়েই স্বচ্ছন্দে খেলা যায়। তবে স্পিন বিভাগে অশ্বিনের ব্যাক আপ কে হবেন তা নিয়ে চুলচেরা কাটাছেঁড়া চলছে।

হাতে চোট রয়েছে শুভমান গিলেরও। তাঁকে প্রোটিয়াজ সফরে রাখা হবে কিনা, তা নিয়ে এখনও দ্বিধায় টিম ম্যানেজমেন্ট। চোটের কারণে এর আগে ইংল্যান্ড সফরে খেলতে পারেননি তরুণ তুর্কি।

মুম্বই টেস্টে ক্লোজে ফিল্ডিং করার সময় হাতে চোট পান। তারপরে স্ক্যান করে হয় তারকার। ফিল্ডিং করতেও নামেননি তিনি। ঘটনা হল, কেএল রাহুল-রোহিত শর্মা ফার্স্ট চয়েস ওপেনার। ব্যাক আপ হিসাবে রয়েছেন মুম্বই টেস্টে তুখোড় ব্যাট করা মায়াঙ্ক আগারওয়াল। তাই ওপেনিংয়ে গিল না থাকলেও সেরকম সমস্যায় পড়বে না ভারত।

ইশান্ত শর্মার আবার সাইড স্ট্রেন রয়েছে। ফিট হতে বেশ কিছুদিন সময় লাগবে। সাম্প্রতিক সময়ে একাধিকবার চোটের কবলে পড়েছেন ইশান্ত। তারকার অনুপস্থিতিতে সিরাজের মত একাধিক বোলার নিজেদের যোগ্যতাও প্রমাণ করেছেন।

তাই ইশান্ত ফিট থাকলেও প্ৰথম একাদশে জায়গা নিয়ে বড়সড় সংশয় তৈরি হয়েছে। নির্বাচকরা আপাতত নতুন করে মঙ্গলবার স্ক্যান রিপোর্ট পর্যালোচনা করবে চার তারকার। তারপরই চূড়ান্ত দল ঘোষণা করা হবে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *