দল থেকে বের করা হোক ঋষভ পন্থকে, কঠোর হুশিয়ারি সাবেক এই ক্রিকেটারের

ঋষভ রাজেন্দ্র পন্ত উত্তরাখণ্ডের হরিদ্বারের রুরকি এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা পেশাদার ভারতীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।

ভারত ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি। জানুয়ারি, ২০১৭ সালে টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক, আগস্ট, ২০১৮ সালে টেস্ট ও অক্টোবর, ২০১৮ সালে ভারতের পক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক পর্ব সম্পন্ন হয় তার

উল্লেখ্য, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে চলতি টেস্ট সিরিজে একেবারেই ছন্দে নেই তরুণ উইকেট-রক্ষক ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্থ। গত দুই টেস্টের চার ইনিংসে পন্থের ব্যাট থেকে এসেছে

মাত্র ৮, ৩৪, ১৭ ও ০। এর মধ্যে আবার জোহানেসবার্গ টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে চাপের মুখেও খারাপ শট খেলে আউট হয়েছিলেন পন্থ।

২০২১ সালে আন্তর্জাতিক টেস্ট ক্রিকেটে ঋষভ পন্থের অবাধ চলাচল প্রত্যেকেই লক্ষ্য করেছে। প্রায় পরাজিত হওয়া ম্যাচকে জয়ের দোরগোড়ায় নিয়ে গিয়েছিলেন ভারতীয় এই তরুণ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান।

তবে বর্তমানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার পারফরম্যান্স রীতিমতো একাধিক প্রশ্নের সৃষ্টি করেছে। ভারতীয় প্রাক্তন ক্রিকেটার সুনীল গাভাস্কার ইতিমধ্যে বিষয়টি নিয়ে সরব হয়েছিলেন।

এবার এই বিষয় নিয়ে আবারো মুখ খুললেন ৮৩-র বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য মদন লাল। তিনি ঋষভ পন্থের পারফরম্যান্সে রীতিমতো বিরক্ত প্রকাশ করেছেন।

এদিন তিনি বলেন, বর্তমানে তার পারফরম্যান্স দেখে বলা যেতেই পারে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে এখন কিছুদিনের জন্য বিশ্রাম দেওয়া যেতে পারে তাকে।

তার স্থানে দলে অন্তর্ভুক্ত করা হোক অভিজ্ঞ ক্রিকেটার ঋদ্ধিমান সাহাকে। যদি ঋষভ পন্থ শুধুমাত্র উইকেটরক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন, সে ক্ষেত্রে ঋদ্ধিমান সাহা কোন অংশে কম নয়।

বরং মিডল অর্ডারে একজন শক্ত ব্যাটসম্যান অন্তর্ভুক্ত হতে পারে ভারতীয় শিবিরে। তিনি আরো বলেন, টেস্ট ক্রিকেটে কিভাবে ব্যাট করা উচিত সেটা প্রথমে শিখতে হবে ঋষভ পন্থকে। ইতিপূর্বে ম্যাচ চলাকালীন সময়ে ধারাভাষ্য দিতে গিয়ে সুনীল গাভাস্কার তুলোধোনা করেছিলেন ঋষভ পন্থকে।

উল্লেখ্য, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে চলতি টেস্ট সিরিজে একেবারেই ছন্দে নেই তরুণ উইকেট-রক্ষক ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্থ। গত দুই টেস্টের চার ইনিংসে পন্থের ব্যাট থেকে এসেছে মাত্র ৮, ৩৪, ১৭ ও ০।

এর মধ্যে আবার জোহানেসবার্গ টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে চাপের মুখেও খারাপ শট খেলে আউট হয়েছিলেন পন্থ। গত টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৭ রান করার পর দ্বিতীয় ইনিংসে খেলেছিলেন মাত্র তিন বল।

ফর্মে থাকা কাগিসো রাবাদাকে ক্রিজ ছেড়ে মারতে গিয়ে উইকেট রক্ষকের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে আউট হয়েছিলেন ২৫ বছরের তরুণ।

শুধু তাই নয়, গত দশ ইনিংসে ব্যাট হাতে একেবারে ব্যর্থ তিনি। পাঁচ বার সিঙ্গেল ডিজিটে ফিরে গিয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচের ‘গোল্ডেন ডাক’ পাওয়ার ঘটনাটি একেবারেই মেনে নিতে পারেননি ভারতের লিটল মাস্টার সুনীল গাভাস্কার।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *