দীর্ঘ ১৬ বছরের ক্যারিয়ারে যা করতে পারেনি ধনি ৭ বছরেই তা করে দেখিয়েছে কোহলি

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজ হারের পর ভারতীয় টেস্ট ক্রিকেট দলের অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিয়ে সকলকে চমকে দিয়েছেন ভারতের তারকা ক্রিকেটার বিরাট কোহলি। এর আগে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ান ডে দলের অধিনায়কত্বও গিয়েছিল তার হাত থেকে।

অধিনায়ক হিসাবে কোহলি অনেক বড় কীর্তি গড়েছেন, যা মহেন্দ্র সিং ধোনি তার পুরো কেরিয়ারে করতে পারেননি। বিরাট কোহলি বরাবরই তার আগ্রাসী স্বভাবের জন্য পরিচিত। সেই আগ্রাসন নিজের দলের মধ্যেও সঞ্চারিত করেছিলেন কোহলি।

ভারতের হয়ে সবচেয়ে বেশি টেস্ট ম্যাচ জিতেছেন বিরাট। তিনি প্রথম ভারত অধিনায়ক যিনি টেস্ট ক্রিকেটে ৪০ টি ম্যাচ জয়ের গন্ডি ছুঁয়েছেন। তার পূর্বসূরি মহেন্দ্র সিং ধোনি যেখানে দীর্ঘদিন নেতৃত্ব দিয়েও মাত্র ২৭টি জয় পেয়েছিলেন।

২০১৪ সালে প্রথম টেস্ট দলের অধিনায়ক করা হয়েছিল বিরাট কোহলিকে। অস্ট্রেলিয়া সফরে মাঝপথেই অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেন ধোনি। মহেন্দ্র সিং ধোনি তার অধিনায়কত্বে অস্ট্রেলিয়া এবং ইংল্যান্ডে ভারতকে কখনও সিরিজ জেতাতে পারেননি।

কোহলির নেতৃত্বে ভারতীয় দল দুটি দেশেই দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছেন। বিরাট কোহলি হলেন প্রথম ভারতীয় অধিনায়ক যিনি অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট সিরিজ জিতেছেন,

প্রথম ভারতীয় অধিনায়ক যিনি দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ২ টি টেস্ট ম্যাচ জিতেছেন এবং প্রথম ভারতীয় অধিনায়ক যিনি ইংল্যান্ডের মাটিতে ৩ টি টেস্ট জিতেছেন৷ অধিনায়কত্ব ছাড়ার পাশাপাশি টুইটার পোস্টে কোচ রবি শাস্ত্রী ও প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিরাট কোহলি।

তিনি আরও লিখেছেন, “রবি ভাই এবং সাপোর্ট স্টাফদের ধন্যবাদ যারা আমার অধিনায়কত্বে ভারতকে সাফল্য এনে দিতে সাহায্য করেছে।

এতে সবাই সহযোগিতা করেছেন।” ধোনি সম্পর্কে তিনি লিখেছেন, “ধোনিকে অনেক ধন্যবাদ যিনি আমাকে একজন অধিনায়ক হিসেবে বিশ্বাস করেছেন এবং আমাকে ভারতীয় ক্রিকেটকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সক্ষম করে তুলেছেন।”

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*