দ্রাবিড়ের এই কর্মকান্ডই যেন ভারতীয় ক্রিকেটের সংস্কৃতিতে পরিণত হচ্ছে

ম্যাচের পর পিচ নির্মাতাদের আর্থিক পুরস্কার। রাহুল দ্রাবিড়ের হাত ধরে ভারতীয় ক্রিকেটে বোধহয় নতুন সংস্কৃতিই চালু হয়ে গেল। কানপুরের পর এ বার ওয়াংখেড়ের পিচ নির্মাতাদেরও ৩৫ হাজার টাকার আর্থিক পুরস্কার দেওয়া হল।

তফাৎ শুধু এক জায়গাতেই। কানপুরে পিচ নির্মাতাদের নিজের পকেট থেকে টাকা দিয়েছিলেন কোচ দ্রাবিড়। ওয়াংখেড়ের পিচ নির্মাতাদের হাতে এই টাকা তুলে দেওয়া হল গোটা ভারতীয় দলের তরফে। ভাল পিচ তৈরি করার জন্যেই এই পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

এক দিনের ক্রিকেটে নেতা কোহলীকে নিয়ে ধোঁয়াশা, সিদ্ধান্ত হয়তো চলতি সপ্তাহের মধ্যেই আগে দেশের মাটিতে সিরিজ হলেই দেখা যেত ভারতীয় স্পিনারদের ঘূর্ণি, ধুলো ওড়া শুকনো পিচে আড়াই-তিন দিনেই আত্মসমর্পণ করত বিপক্ষ দল।

দ্রাবিড়ের কোচিংয়ে সেই জিনিস দেখা যাচ্ছে না। কানপুরে পাঁচ দিনই টেস্ট চলেছে, যেখানে সাহায্য পেয়েছে দুটি দলই। টেস্ট না জিতলেও পিচ নির্মাতাদের আর্থিক পুরস্কার দিয়েছিলেন দ্রাবিড়।

ওয়াংখেড়েতেও ম্যাচ তিন দিনের বেশি চলেছে। তবে এখানে স্পিনারদের সাহায্যের থেকেও বেশি নিউজিল্যান্ড ব্যাটারদের ব্যর্থতা প্রকট হয়ে পড়েছে। পিচ নিয়ে আঙুল তোলেননি কেউই।

মুম্বই টেস্টের পর দ্রাবিড় বলেছেন, “সিরিজ জিতে ভাল লাগছে। কানপুরে মাত্র এক উইকেটের জন্য জিততে পারিনি। এখানে ফলাফল দেখে অনেকেই বলবেন ম্যাচ একপেশে হয়েছে। কিন্তু আমরা জানি জেতার জন্য কতটা পরিশ্রম করতে হয়েছে।”

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *