ধোনির আগে অভিষেক, এখনও অবসর নেননি ভারতীয় ৩ ক্রিকেটার

মহেন্দ্র সিং ধোনি গত বছর ১৫ই আগস্ট আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়ে সমগ্র ক্রিকেট বিশ্বকে চমকে দিয়েছিলেন। এর কিছুক্ষণ পরেই সুরেশ রায়নাও একই পথে হাঁটেন।

এই দুই ক্রিকেটার ভারতের হয়ে একসাথে বহু ম্যাচ খেলেছেন। যদিও রায়না ধোনির পরেই অভিষেক করেছিলেন কিন্তু বর্তমানে এমন তিন ভারতীয় খেলোয়াড় রয়েছেন যারা ধোনির আগে প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছিলেন কিন্তু এখনো অবসর ঘোষণা করেননি।

৩) দীনেশ কার্তিক:ভারতীয় উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান দীনেশ কার্তিক মহেন্দ্র সিং ধোনির আগেই ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক করেছিলেন এবং তিনি বর্তমানে কলকাতা নাইট রাইডার্স এর হয়ে খেলছেন। এই তামিলনাড়ুর ডানহাতি ব্যাটসম্যান ধোনির অভিষেক হওয়ার কিছুদিন আগে তার প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিলেন।

দীনেশ কার্তিক দলে সুযোগ পেয়েও বারবার ব্যর্থ হয়েছেন, তাই নিয়মিত দলের হয়ে খেলা চালিয়ে যেতে পারেননি। সর্বশেষ তিনি ২০১৯ আইসিসি বিশ্বকাপে জাতীয় দলের হয়ে খেলেন। এছাড়াও কার্তিক ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ২০১৩ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি বিজয়ী দলের সদস্য ছিলেন।

২) অমিত মিশ্র:দিল্লির অভিজ্ঞ লেগ স্পিনার অমিত মিশ্রর ওয়ানডে ক্যারিয়ারের সীমিত হলেও সব সময় নিজের সেরাটা দিয়েছেন। ২০০৩ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তার ওয়ানডেতে অভিষেক হয়েছিল। তবে নির্বাচকদের উপেক্ষার কারণে বেশিদিন জাতীয় দলের হয়ে খেলা চালিয়ে যেতে পারেননি।

অমিত মিশ্র দেশের হয়ে ৩৬টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন যেখানে ৪.৭২ দুর্দান্ত ইকোনমি রেট নিয়ে ৬৪টি উইকেট নিয়েছেন। দুর্ভাগ্যবশত টিম ম্যানেজমেন্ট তাকে উপযুক্ত সুযোগটুকু দেয়নি।

তিনি শেষ আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচে ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ হয়েছিলেন এবং এমনকি সেই ওয়ানডে সিরিজেও প্লেয়ার অফ দ্যা সিরিজ নির্বাচিত হন।

১) হরভজন সিং:৯০ দশকে অভিষেক করা হরভজন সিং তার সময়ের অন্যতম সেরা অফস্পিনার ছিলেন। তিনি ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ২০১১ আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের সদস্য ছিলেন।

এরপর তার ধারাবাহিকতার অভাবে এবং অন্যদিকে রবীন্দ্র জাদেজা ও রবীচন্দ্রন অশ্বিনের উত্থানে তার চাহিদা কমে যেতে থাকে।

এরপর বিরাট কোহলির অধিনায়কত্বে আর কখনও জাতীয় দলের হয়ে খেলার সুযোগটুকু পাননি। হরভজন সিং ভারতের হয়ে ১০৩ টেস্ট, ২৩৬ ওয়ানডে ও ২৮টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন।

যথাক্রমে ৪১৭ উইকেট, ২৬৯ উইকেট ও ২৫টি উইকেট নিয়েছেন। তিনি এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানাননি।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *