ধোনির এই একটি উপদেশ কখনও ভোলেননি কোহলি

জোহানেসবার্গে ২য় টেস্ট ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে ঋষভ পন্ত যে শটটি খেলেছিলেন তা এখন ক্রিকেট মহলের আলোচিত বিষয়। নিজের তৃতীয় ডেলিভারিতেই পান্ত কাগিসো রাবাডার একটি শর্ট ডেলিভারিতে স্টেপ আউট করে আক্রমণাত্মক শট খেলতে যান এবং বলটি তাঁর ব্যাটের প্রান্তে লেগে জমা হয় উইকেটকিপারের দস্তানায়।

ইতিমধ্যেই ভুলের পুনরাবৃত্তি নিয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ কথা বলেছেন ভারতীয় টেস্ট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। এবার এই বিষয়ে মুখ খুললেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। কোহলি অভিমত ব্যক্ত করেছেন যে, যে ব্যাটার ওই শট খেলেছিলেন তিনিই প্রথম ব্যক্তি হবেন যিনি বুঝতে পারবেন ওই শটটি খেলা ঠিক ছিল কিনা। কোহলি আরও বলেন, খেলোয়াড়দের মানসিকতাও বোঝা উচিত।

“আমাদের অনুশীলনে ঋষভ পান্তের সাথে কথা হয়েছে। একটি শট খেলে আউট হলে ব্যাটাররা সবার আগে জানে ওই শটটি সঠিক শট ছিল কি না। সেই মুহূর্তে খেলোয়াড়ের মানসিকতা বোঝা গুরুত্বপূর্ণ। ভুল সবাই করে,” দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তৃতীয় টেস্ট ম্যাচের আগে বলেছেন বিরাট কোহলি।

এই প্রসঙ্গেই বিরাট কোহলি একটি ঘটনার স্মৃতি শেয়ার করেছেন। তিনি তাঁর প্রাক্তন অধিনায়কের একটি উপদেশ প্রকাশ করেছেন যা তিনি কখনও ভোলেননি। ধোনি কোহলিকে বলেছিলেন যে কোনও খেলোয়াড় একই ভুল পুনরাবৃত্তি করার আগে কমপক্ষে ৭ বা ৮ মাসের ব্যবধান থাকা উচিত এবং তবেই খেলোয়াড়টি আন্তর্জাতিক স্তরে দীর্ঘ কেরিয়ারের অভিজ্ঞতা অর্জন করবে। কোহলি এই বলে শেষ করেছেন যে ধোনির এই পরামর্শ তাঁর সঙ্গে রয়ে গেছে।

“সবাই ভুল করে, গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল নিজের ভুল অনুধাবন করা। এমএস ধোনি একবার আমাকে বলেছিলেন যে তুমি যদি কোন ভুল করো তবে কমপক্ষে ৭-৮ মাস সেই ভুলের পুনরাবৃত্তি যাতে না হয় তা নিশ্চিত করবে। এই কথাটি আমার সঙ্গে এখনও রয়ে গেছে,” বিরাট কোহলি উপসংহারে বলেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ভারতের মধ্যে তৃতীয় টেস্ট ১১ই জানুয়ারি ২০২২ কেপটাউনে শুরু হবে।ক্রিক ট্রাকার

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *