পুরুষ দলের সঙ্গে ভারতের নারী ওপেনার, মুহূর্তেই ভাইরাল ক্রিকেটবিশ্বে

ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া সফরে গেলে খেলতে হয় অনেক বেশি শর্ট বল। তাই সেটির সঙ্গে মানিয়ে অভিনব পন্থায় নতুন মিশনে নেমেছেন ভারতের নারী ক্রিকেট দলের তরুণী ওপেনার শেফালি ভার্মা। সমস্যা দূর করতে পুরুষ দলের বিপক্ষে অনুশীলন শুরু করেছেন তিনি।

২০১৯ সালে মাত্র ১৫ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যাত্রা শুরু হয়েছিল শেফালির। দুই বছরের মধ্যেই বিশ্ব মঞ্চে নিজের জায়গা পাকাপোক্ত করে ফেলেছেন তিনি। ভারতের নারী দলের তারকা ওপেনার স্মৃতি মান্ধানার সঙ্গে মিলে বিষ্ফোরক সূচনা এনে দিতে জুরি নেই শেফালির।

কিন্তু শর্ট বলের বিপক্ষে আগে থেকেই দুর্বলতা রয়েছে তার। এই সমস্যা কাটিয়ে উঠতে গুরুগ্রামে নিজের কোচ আশ্বনি কুমারের অধীনে অনূর্ধ্ব-২৫ পুরুষ দলের অনুশীলনে নিয়মিত ২০০-২৫০ বল ব্যাটিং করছেন শেফালি। যেখানে নিয়মিত ১২৫ থেকে ১৩০ কিমি প্রতি ঘণ্টায় বোলিং করে থাকেন বোলাররা।

হুন্দাইয়ের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হওয়ার অনুষ্ঠানে প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াকে শেফালি বলেছেন, ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দুই বছর পার করেছি- এটা আমার জন্য আনন্দের। তবে সামনে আরও দূর যেতে হবে। আমার নিজের খেলার উন্নতি করতে হবে। যার মধ্যে একটি হলো শর্ট বলের বিপক্ষে ভালো খেলা।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘কোচরা সবসময় আমাকে বলেছেন বলের মেধা অনুযায়ী খেলতে। আমি সেটাই করতে থাকবো। কখনও নিজের খেলা বদলাবো না।’

শেফালির কোচ আশ্বনি মনে করেন, অভিজ্ঞতা যত বাড়বে তত ভালো হবে তার খেলা। আশ্বনি বলেছেন, ‘আমাদের ভুলে গেলে চলবে না, ওর বয়স মাত্র ১৭ বছর। স্বপ্নিল টেস্ট অভিষেকই প্রমাণ করে ওর মধ্যে বিশ্ব মঞ্চে ভালো খেলার সামর্থ্য ও টেকনিক রয়েছে।’

‘সীমিত ওভারের ক্রিকেটে যেখানে স্কোরবোর্ডের একটা চাপ থাকে সবসময়, সেখানে আপনাকে খুব দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে হয় এবং চিন্তাভাবনা পরিষ্কার রাখতে হয়। এই জায়গায় ওর (শেফালি) কিছু উন্নতি প্রয়োজন। সে যেভাবে ভারতের হয়ে খেলছে, এখান থেকে শুধু ভালোই হবে।’

ভারতের হয়ে এখন পর্যন্ত ২ টেস্ট, ৬ ওয়ানডে ও ২৮ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন শেফালি। টেস্টে চার ইনিংসে করেছেন তিনটি ফিফটি। আর টি-টোয়েন্টিতে ১৪২ স্ট্রাইকরেটে তার সংগ্রহ ৬৮৭ রান।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *