প্রকাশ হল ২০০০ সাল থেকে এখনও পর্যন্ত ভারতীয় ক্রিকেটের সেরা ওডিআই একাদশ!

ভারতীয় ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে অনেক দুর্দান্ত খেলোয়াড় প্রতিনিধিত্ব করেছেন। বিশেষ করে ২০০০ সালের পর থেকে ভারতীয় দল শক্তিশালী হয়ে ওঠে।

বর্তমানে সেই ধারা আজও অব্যাহত রয়েছে এবং বিশ্বের কাছে ভারত একটি শক্তিশালী ওয়ানডে দল। এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০০০ সালের পর থেকে এখনও পর্যন্ত যারা ভারতের হয়ে খেলেছেন তাদের নিয়ে তৈরি হয়েছে একটি শক্তিশালী একাদশ দল। এবার জেনে নেওয়া যাক:

১) শচীন টেন্ডুলকার:

ওপেনিংয়ের দায়িত্বে মাস্টার ব্লাস্টার শচীন টেন্ডুলকারকে রাখা হয়েছে। তিনি ওপেনার হিসেবে ভারতের হয়ে ওয়ানডেতে ১৫৩১০ রান করেছেন। তার পুরো ওয়ানডে ক্যারিয়ারের কথা বললে, তিনি ৪৬৩টি ম্যাচে ৪৪.৮ গড়ে ১৮৪২৬ রান করেছেন। যার মধ্যে রয়েছে ৪৯টি সেঞ্চুরি ও ৯৬টি হাফ সেঞ্চুরি। তার সর্বোচ্চ স্কোর অপরাজিত ২০০ রান।

২) রোহিত শর্মা:

শচীন টেন্ডুলকারের পাশাপাশি ওপেনার হিসেবে রোহিত শর্মাকে বেছে নেওয়া হয়েছে। তিনি ওপেনার হিসেবে ওয়ানডে ক্রিকেটে এখনো পর্যন্ত ৭২৩৮ রান করেছেন।

রোহিতের পুরো ওয়ানডে ক্যারিয়ারের কথা বললে তিনি এখনও পর্যন্ত ২২৭টি ৪৮.৯৬ গড়ে ৯২০৫ রান করেছেন। যার মধ্যে রয়েছে ২৯টি সেঞ্চুরি ও ৪৩টি হাফ সেঞ্চুরি। তার সর্বোচ্চ স্কোর ২৬৪ রান।

৩) বিরাট কোহলি:

৩ নম্বর পজিশনে বিরাট কোহলির চেয়ে আর ভালো কেউ হতেই পারেনা। বর্তমান সময়ে তিনি ওয়ানডে ক্রিকেটের বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে বিবেচিত হন।

তিনি তার ক্রিকেট ক্যারিয়ারে অসংখ্য রেকর্ড গড়েছেন। জানিয়ে রাখি, বিরাট কোহলি ২০০৮ সালে শ্রীলঙ্কা দলের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচে অভিষেক করেছিলেন। এরপর থেকে গত ১৩ বছরে বিরাট কোহলিকে আর পিছু ফিরে তাকাতে হয়নি।

৪) রাহুল দ্রাবিড়:

চার নম্বরে রয়েছেন ‘দ্য ওয়াল’ রাহুল দ্রাবিড়, যিনি ভারতের হয়ে অনেক দুর্দান্ত ইনিংস খেলেছেন। একজন দুর্দান্ত টেস্ট ক্রিকেটার হওয়ার পাশাপাশি তিনি ওয়ানডে ক্রিকেটেও কম যান না।

১৯৯৯ বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী ব্যাটসম্যান ছিলেন। রাহুল দ্রাবিড় ৩৪৪টি ওয়ানডে ম্যাচে ৩৯.১৭ গড়ে ১০৮৮৯ রান করেছেন। যার মধ্যে রয়েছে ১২টি সেঞ্চুরি এবং তার সর্বোচ্চ স্কোর ১৫৩ রান।

৫) যুবরাজ সিং:

৫ নম্বর পজিশনে যুবরাজ সিং এর চেয়ে আর কেউ ভালো কেউ হতে পারে না। যাকে ভারতীয় ক্রিকেটের সিক্সার কিং বলা হয়। যুবরাজ তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দিয়ে ভারতীয় দলের হয়ে অনেক টুর্নামেন্ট জিতিয়েছেন।

২০০০ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন। যুবরাজ সিং ভারতের হয়ে মোট ৩০৪টি ওয়ানডে ম্যাচে ৩৬.৫৬ গড়ে ৮৭০১ রান করেছেন। যার মধ্যে রয়েছে ১৪টি সেঞ্চুরি ও ৫২টি হাফ সেঞ্চুরি। তার সর্বোচ্চ স্কোর ১৫০ রান।

৬) মহেন্দ্র সিং ধোনি:

মহেন্দ্র সিং ধোনিকে এই একাদশে উইকেট-রক্ষক ও অধিনায়ক হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি একজন ফিনিশারের ভূমিকায় রয়েছেন। ২০০৪ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল।

এরপর অধিনায়কত্ব পরপর ভারতীয় দলকে এক নতুন উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছিলেন। তিনি ভারতের হয়ে মোট ৩৫০টি ওয়ানডে ম্যাচে ৫০.৬ গড়ে ১০৭৭৩ রান করেছেন। যার মধ্যে রয়েছে ১০টি সেঞ্চুরি ও ৭৩টি হাফ সেঞ্চুরি। তার সর্বোচ্চ স্কোর অপরাজিত ১৮৩ রান।

৭) রবীন্দ্র জাদেজা:

এই তালিকায় সাত নম্বরে স্পিন বোলিং অলরাউন্ডার হিসেবে রয়েছেন রবীন্দ্র জাদেজা। যিনি ভারতীয় দলের হয়ে বর্তমানে তিন ফরম্যাটেই সমানভাবে পারফরম্যান্স করছেন।

তিনি এখনো পর্যন্ত ভারতের মোট ১৬৮টি ওয়ানডে ম্যাচে ২৪১১ রান করার পাশাপাশি ১৮৮টি উইকেট নিয়েছেন। এছাড়া টেস্ট ক্রিকেটেও একজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় তিনি।

৮) রবীচন্দ্রন অশ্বিন:

একসময় অধিনায়ক ধোনির তুরুপের তাস ছিলেন রবীচন্দ্রন অশ্বিন। যখনই উইকেটের প্রয়োজন পড়েছে তিনি দলকে সাফল্য দিয়েছেন। যদিও বেশ কিছু বছর ধরে তিনি কেবল টেস্ট ক্রিকেট খেলছেন,

তবে এই ফরম্যাটেও তিনি অন্যতম সেরা খেলোয়াড়। অশ্বিন এখনও পর্যন্ত ১১১টি ওয়ানডে ম্যাচে ১৫০টি উইকেট নিয়েছেন। টেস্ট ক্রিকেটে তার ভালো পরিসংখ্যান রয়েছে।

৯) হরভজন সিং:

ভারতীয় স্পিনার হরভজন সিংও এই তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন। ১৯৯৮ সালে তার ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল। এই সময় তার বয়স ছিল মাত্র ১৮ বছর।

সম্প্রতি তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন। আশ্বিনের মতই তারও টেস্ট ক্যারিয়ার উজ্জ্বল। হরভজন সিং ভারতের মোট ২৩৬টি ওয়ানডে ম্যাচে ২৬৯টি উইকেট নিয়েছেন।

১০) জাহির খান:

ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসে জাহির খান একজন দুর্দান্ত বোলার। তার অসাধারণ বোলিং দিয়ে অনেক ম্যাচ ভারতীয় দলকে জিতিয়েছেন। জাহির খান তার বলের গতির মিশ্রণ ও দুর্দান্ত ইয়র্কারের জন্য পরিচিত ছিলেন।

২০১১ বিশ্বকাপ জয়ে ভারতীয় দলের হয়ে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। জাহির খান মোট ২০০টি ওয়ানডে ম্যাচে ২৮২টি উইকেট নিয়েছেন।

১১) জসপ্রীত বুমরাহ:

বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বে জসপ্রীত বুমরাহকে অন্যতম সেরা ফাস্ট বোলার হিসেবে বিবেচনা করা হয়। যে কোন ব্যাটসম্যানের পক্ষে তা বলের মোকাবিলা করা খুবই কঠিন। তার অদ্ভুত বোলিং অ্যাকশন নিয়ে বিশ্বের প্রায় সব ব্যাটসম্যানেরাই সমস্যায় পড়েছেন।

এই দুর্দান্ত ভারতীয় ফাস্ট বোলার এখনও পর্যন্ত ৬৭টি ওয়ানডে ম্যাচে ৪.৬৬ ইকোনোমি রেটে ১০৮টি উইকেট নিয়েছেন। তার সেরা বোলিং ফিগারটি হল ৫-২৭ উইকেট।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *