সামাজিক যোগাযোগ বিভিন্ন মাধ্যমে ফাঁ’দ পেতে প্রবাসীদের সর্বস্বান্ত করার অ’ভিযোগে নোয়াখালী দুই তরু’ণীসহ তাদের সহযোগী বিকাশ এজেন্টকে নোয়াখালীর সিআইডি পু’লিশ আ’টক করেছে।

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজে’লার প্র’তারিত ও ভু’ক্তভো’গী কুয়েত প্রবাসী সাইফুল ইস’লামের অ’ভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার রাতে তাদের গ্রে’ফতার করা হয়।

গ্রে’ফতারকৃ’তরা হচ্ছেন নোয়াখালী সরকারি মহিলা কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী বেগমগঞ্জ উপজে’লার শরীফপুর ইউনিয়নের খানপুর গ্রামের জিল্লুর রহমানের মেয়ে মারজাহান আক্তার (১৯), একই কলেজের

ছাত্রী সেনবাগ উপজে’লার কেশারপাড় ইউনিয়নের লেদুয়া গ্রামের গোলাম মাওলার মেয়ে শাহজাদী মজুমদার (২০) এবং তাদের সহযোগী বিকাশ এজেন্টের মালিক নোয়াখালী পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের জয়কৃষ্ণপুর গ্রামের হোসেন আহম্মদে’র ছেলে মোশারফ হোসেন মনু (৩০)।

অ’ভিযুক্তদের আ’টকের পর তাদের ব্যবহৃত বিকাশ অ্যাকাউন্টে বিপুল পরিমাণ টাকা লেনদেনের প্র’মাণ পাওয়া গেছে। কোম্পানীগঞ্জ উপজে’লার কুয়েত প্রবাসী সাইফুল ইস’লামকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই দুই তরু’ণী রূপের জা’লে ফেলে কয়েক দফায় প্রায় সাড়ে ৫ লাখ টাকা হা’তিয়ে নেয়।

একই পদ্ধতিতে কোম্পানীগঞ্জের মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসী তানভীর হোসেন, মোস্তফা চৌধুরী নামে দুই প্রবাসী যুবকের কাছ থেকেও কয়েক লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় এ চক্রটি। এ ছাড়াও জে’লার বেশ কয়েকজন যুবক এ ব’খাটে তরু’ণীচক্রের যৌ’নতার ফাঁ’দে পড়েছেন বলে বিভিন্ন সূত্র নিশ্চিত করেছে।

নোয়াখালী জে’লা সিআইডি পু’লিশের এসআই শাহ আলম চক্রটির বি’রুদ্ধে মা’মলা দা’য়ের ও গ্রে’ফতারের স’ত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নোয়াখালীতে একাধিক সক্রিয় না’রী প্র’তারকচক্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক,

ইমো, হোয়াটসআপ, ম্যাসেঞ্জারে ইউরোপ প্রবাসী কন্যা সেজে মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসী যুবকদের বিয়ে করে ইউরোপে নেয়ার প্র’লোভনে ফেলে প্র’তারণা করে মোটা অংকের টাকা হা’তিয়ে নেয়।

তিনি বলেন, চক্রটি প্রথমে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, ইমো, হোয়াটসআপ, ম্যাসেঞ্জারে আ’পত্তিকর আচরণ করে তা কৌশলে ধা’রণ করে নেয়।

পরে এ সব ছবি ভিডিও অনলাইনে ফাঁ’স করে দেয়ার ভ’য় দেখিয়ে ব্ল্যা’কমেইল করে হুম’কি-ধা’মকি দিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়।এ ছাড়াও গরিব অ’সহায় লোকজনকে ক্যান্সারসহ বিভিন্ন জ’টিল রো’গে আ’ক্রান্তের কথা বলে মানবিক আবেদন দেখিয়ে অ’সুস্থ রোগীদের বা’নোয়াট ছবি প্রদর্শন করে সাহায্যের নামে টাকা হাতিয়ে নেয়।

এ ধরনের প্র’তারণার উদ্দেশ্যে চক্রটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকগুলো আইডি ব্যবহার করে। টাকা হা’তিয়ে নেয়ার পর প্র’তারকচক্রটি আইডিগুলো পুরোপুরি ন’ষ্ট করে দেয়।

এ বিষয়ে একটি গো’য়েন্দা সংস্থাকে বাহরাইন প্রবাসী কবির হোসেন প্রবাস থেকে ফোনে জানান, গরিব অ’সুস্থ লোককে সাহায্যের কথা বলে তার কাছ থেকে ১৮ হাজার টাকা হা’তিয়ে নেয়া হয়েছে।

সম্প্রতি ইমোতে তাকে ব্ল্যা’কমেইল করে মোটাঅংকের টাকা দা’বি করা হয়েছে বলেও তিনি জানান। এ সব তথ্য পাওয়া গেছে নোয়াখালীর পু’লিশ ক্রি’মিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি) থেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.