বাঘ-সিংহের লড়াই, শেষমেষ সৌরভের আঁচড়ে ক্ষত বিক্ষত কোহলি

একই বনে থাকবেনা দুই রাজা! এ যেন বাঘ-সিংহের লড়াই। অবশেষে ক্ষতবিক্ষত হল সিংহ নামক বিরাট কোহলি। বেঙ্গল টাইগারের হাতে পাল্টে গেল ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাস।

চলনে বলনে তিনিই যে সত্যিই মহারাজ তা আরো একবার প্রমান করলেন সৌরভ গাঙ্গুলী। ভারতীয় ক্রিকেটে সৌরভ গাঙ্গুলী এবং বিরাট কোহলির মধ্যে সংঘাত আজকের নয়, বরং বহুদিনের।

আর সেই জন্য উচ্চ পদে থাকা সৌরভ গাঙ্গুলী কঠিন হস্তে সেই সংঘাতের সমাপ্তি করলেন। অবশ্য এর পেছনে বহুদিনের পরিশ্রম ছিল তার। ভারতীয় ক্রিকেটে বিরাট কোহলি এবং রবি শাস্ত্রী একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার হয়েছিল। প্রথমে সেই জুটি ভেঙে আলাদা করেন সৌরভ গাঙ্গুলী।

তারপর অবশ্য বাকি কাজ গুলি সহজেই হয়ে যায়। একের পর এক আঘাতে জর্জরিত করতে থাকেন বিরাট কোহলিকে। প্রথমে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের অধিনায়কত্ব ছাড়েন বিরাট কোহলি।

সাদা বলে দুজন অধিনায়ক রাখতে নারাজ ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড এমনটাই দাবি করে একদিনের ক্রিকেটেও অধিনায়কত্ব কেড়ে নেওয়া হয় বিরাট কোহলির নিকট থেকে। এরপর শুধুমাত্র টেস্ট ক্রিকেটের নেতা করা হয় কোহলিকে।

তবে সেখানেও বেশিদিন স্থায়ী হতে পারেননি বিরাট কোহলি।ক্রিকেটপ্রেমীরা ইতিমধ্যে দুই অংশে বিভক্ত হয়েছে। একাংশ সৌরভ গাঙ্গুলীর সাথে দাঁড়িয়ে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সমর্থনে, অন্যদিকে আরেক অংশ বিরাট কোহলিকে সমর্থন করাই শ্রেয় ভাবছে।

এমন অবস্থায় ভারতীয় ক্রিকেটের ভাগ্য কতটা উজ্জ্বল হবে তা নিয়ে উঠেছে একাধিক প্রশ্ন। ইতিপূর্বে সৌরভ গাঙ্গুলী এবং গ্রেগ চ্যাপেলের মধ্যে সংঘাত ভারতীয় দলের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি ডেকে এনেছিল।

এবার বিরাট কোহলি এবং সৌরভ গাঙ্গুলীর মধ্যে দ্বন্দ্ব ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের চিন্তায় ফেলেছে। আশঙ্কা বড় কিছু ঘটতে চলেছে ভারতীয় ক্রিকেটে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *