বিরাট “কিট ব্যাগে তাঁর অহংকার রেখে এসেছিলেন” বোমা ফাটালেন গৌতম গম্ভীর

বিরাট কোহলি দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তৃতীয় টেস্ট ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ভারতীয় দলের হয়ে একটি ক্লাসিক ইনিংস খেলেছেন। ডানহাতি ব্যাটারের ২০১ ডেলিভারিতে ৭৯ রান ভারতীয় দলকে স্কোরবোর্ডে মোট ২২৩ রান তুলতে সাহায্য করে।

তাঁর এই ইনিংস দেখে প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর মুগ্ধ। গম্ভীর মতামত দিয়েছেন যে এই ইনিংসের জন্য কোহলি তাঁর নিজের কিটব্যাগে তাঁর অহং রেখে এসেছিলেন এবং

যোগ করেছেন যে ৩৩ বছর বয়সী ভারতীয় অধিনায়ক যেভাবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে খেলেছেন তাতে গম্ভীরের ২০১৮ সালে ইংল্যান্ডে কোহলির সফল সিরিজের কথা মনে পড়ে যাচ্ছে।

“বিরাট অনেকবার বলেছেন যে আপনি যখন ইংল্যান্ডে যাবেন, আপনার অহংকার ভারতে রেখে যাওয়া উচিত। আজ, বিরাট কোহলি কিট ব্যাগে তাঁর অহংকার রেখে এসেছিলেন এবং

এই ইনিংসটি আমাকে তাঁর খুব সফল ইংল্যান্ড সফরের কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে, যেখানে তিনি আগে অনেকবার ব্যর্থ হওয়ার পর অফ-স্টাম্পের বাইরে অনেক ডেলিভারি ছেড়েই যাচ্ছিলেন,” গৌতম গম্ভীর স্টার স্পোর্টসে একটি আলোচনায় বলেছেন।

গৌতম গম্ভীর আরও যোগ করেছেন যে বিরাট কোহলি অফ-স্টাম্পের বাইরে ডেলিভারি ছেড়ে দিয়ে নিজের অহংকে নিয়ন্ত্রণে রেখেছিলেন। ৪০ বছর বয়সী গম্ভীর এই বলে শেষ করেছেন যে ভারতীয় অধিনায়ক ব্যাট হাতে দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারদের উপর আধিপত্য বিস্তার করার চেষ্টা করেননি।

“আজ ইংল্যান্ড সফরের মতোই তিনি অফ স্টাম্পের বাইরে ডেলিভারি ছাড়ছিলেন। তিনি আক্রমণাত্মক শট খেললেও নিজের অহংকে নিয়ন্ত্রণে রাখছিলেন। তিনি প্রতিটি ডেলিভারিতে বোলারদের উপর আধিপত্য করার চেষ্টা করেননি,” গম্ভীর উপসংহারে বলেছেন।

কোহলি ছাড়াও অভিজ্ঞ ব্যাটার চেতেশ্বর পূজারা ভারতীয় দলের হয়ে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছেন। তিনি ৭৭ বলে ৪৩ রান করেন। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে কাগিসো রাবাডা সবচেয়ে বেশী নজর কেড়েছেন এবং চার উইকেট শিকার করেছেন।

রাবাডা ছাড়া উল্লেখযোগ্য বোলার মার্কো জ্যানসেন। তিনি নিয়েছেন ৩ উইকেট। প্রথম দিনের শেষে দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোরবোর্ডে ১৭/১। ভারতের রানের চেয়ে তারা ২০৬ রানে পিছিয়ে আছে। জসপ্রীত বুমরাহ প্রথম দিনের শেষ দিকে প্রোটিয়া অধিনায়ক ডিন এলগারের গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে নেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *