বুমরাহ- শামির বোলিং তাণ্ডবে কঠিন চাপে দক্ষিণ আফ্রিকা, দেখুন সর্বশেষ স্কোর

সেঞ্চুরিয়ন টেস্টে জয়ের পর ভারতের সামনে সুযোগ ছিল জোহানেসবার্গেই সিরিজ পকেটে পুরে ইতিহাস গড়ার। তবে ওয়ান্ডারার্সে টিম ইন্ডিয়া হেরে বসায় সিরিজে ১-১ সমতা ফেরায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

স্বাভাবিকভাবেই কেপ টাউনের তৃতীয় টেস্ট নির্ণায়ক রূপ নিয়েছে। নিউল্যান্ডসে জয় তুলে নিয়ে সিরিজের দখল নেওয়ার হাতছানি রয়েছে উভয় দলের সামনেই। তবে ভারত যেহেতু কখনও দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট সিরিজ জেতেনি, তাই তাদের সামনে হাতছানি রয়েছে কেপ টাউনে নতুন অধ্যায় রচনার।

৬২.২ ওভারে বুমরাহর বলে বোল্ড হলেন মারকো জানসেন। ২৬ বলে ৭ রান করে আউট হন প্রোটিয়া তারকা। দক্ষিণ আফ্রিকা ১৭৬ রানে ৭ উইকেট হারায়। জানসেন আউট হওয়া মাত্রই চায়ের বিরতি ঘোষণা করেন আম্পায়াররা।

পিটারসেন আকপ্রান্ত আঁকড়ে পড়ে রয়েছেন। তিনি ব্যাট করছেন ব্যক্তিগত ৭০ রানে। আপাতত ভারতের থেকে ৪৭ রানে পিছিয়ে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

বাভুমাকে ফেরানোর পর একই ওভারের চতুর্থ বলে কাইল ভেরেইনের উইকেট তুলে নেন শামি। ২ বল খেলে খাতা খোলার আগেই আউট হন প্রোটিয়া উইকেটকিপার। দক্ষিণ আফ্রিকা ১৫৯ রানে ৬ উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান মারকো জানসেন।

৫৫.২ ওভারে মহম্মদ শামির বলে বিরাট কোহলির হাতে ধরা পড়েন তেম্বা বাভুমা। ৪টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৫২ বলে ২৮ রান করে সাজঘরে ফেরেন বাভুমা। দক্ষিণ আফ্রিকা ১৫৯ রানে ৫ উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান কাইল ভেরেইন।

৫২তম ওভারে দলগত ১৫০ রান টপকে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। শার্দুলের প্রথম বলে বাউন্ডারি মারেন বাভুমা। ওভারে মোট ৬ রান ওঠে। ৫২ ওভারে দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোর ১৫৩/৪। ভারতের থেকে ৭০ রানে পিছিয়ে রয়েছে প্রোটিয়ারা।

একে তো ক্যাচ মিস। তার উপর বল গিয়ে লাগে পন্তের ব্যবহার করা হেলমেটে। ৪৯.৫ ওভারে শার্দুলের বলে বাড়তি ৫ রান পেয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

আপাতত ৫০ ওভার শেষে দক্ষিণ আফ্রিকা তাদের প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেটের বিনিময়ে ১৪৩ রান তুলেছে। পিটারসেন ৫৬ রানে অপরাজিত রয়েছেন। ১৭ রানে ব্যাট করছেন বাভুমা।

৮টি বাউন্ডারির সাহায্যে ১০১ বলে ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন কিগান পিটারসেন। ৪১ ওভার শেষে দক্ষিণ আফ্রিকা তাদের প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেটের বিনিময়ে ১২০ রান তুলেছে। পিটারসেন ৫২ রানে অপরাজিত রয়েছেন। ৪ রানে ব্যাট করছেন তেম্বা বাভুমা।

৩৯.২ ওভারে উমেশ যাদবের বলে বিরাট কোহলির হাতে ধরা পড়েন রাসি ভ্যান ডার দাসেন। ৫৪ বলে ২১ রান করে ক্রিজ ছাড়েন প্রোটিয়া তারকা।

দক্ষিণ আফ্রিকা ১১২ রানে ৪ উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান তেম্বা বাভুমা। তিনি ক্রিজে এসে দ্বিতীয় বলেই বাউন্ডারি মারেন। ৪০ ওভার শেষে দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোর ১১৬/৪।

ভারতের ২২৩ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকা দ্বিতীয় দিনের লাঞ্চে তাদের প্রথম ইনিংসে ৩ উইকেটের বিনিময়ে ১০০ রান তুলেছে। ৭টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৮৬ বলে ৪০ রান করেছেন পিটারসেন। ৪২ বলে ১৭ রান করে অপরাজিত রয়েছেন ভ্যান ডার দাসেন। তিনি কোনও বাউন্ডারি মারেননি।

দক্ষিণ আফ্রিকা তাদের প্রথম ইনিংসে ৩০ ওভার ব্যাট করে ৩ উইকেটের বিনিময়ে ৮৪ রান তুলেছে। পিটারসেন ৭২ বলে ৩০ রান করেছেন। ২৬ বলে ১২ রান করেছেন রাসি ভ্যান ডার দাসেন।

২২তম ওভারে প্রথম ইনিংসে দলগত ৫০ রানের গণ্ডি টপকে গেল দক্ষিণ আফ্রিকা। ২২ ওভার শেষে প্রোটিয়াদের স্কোর ৫৬/৩। পিটারসেন ৪৬ বলে ১১ রান করেছেন। ৪ বলে ৪ রান করেছেন ভ্যান ডার দাসেন।

নাইটওয়াচম্যান কেশব মহারাজকে ফিরিয়ে ভারতকে ইনিংসের তৃতীয় সাফল্য এনে দিলেন উমেশ যাদব। ৪টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৪৫ বলে ২৫ রান করে বোল্ড হন কেশব। দক্ষিণ আফ্রিকা ৪৫ রানে ৩ উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান রাস ভ্যান ডার দাসেন।

১৫ ওভার শেষে দক্ষিণ আফ্রিকা তাদের প্রথম ইনিংসে ২ উইকেটের বিনিময়ে ৩৭ রান তুলেছে। ৩৩ বলে ১৭ রান করেছেন কেশব মহারাজ। ২০ বলে ৪ রান করে অপরাজিত রয়েছেন পিটারসেন।

দিনের প্রথম ওভারেই ভারতকে সাফল্য এনে দিলেন জসপ্রীত বুমরাহ। দ্বিতীয় বলে তিনি বোল্ড করেন প্রোটিয়া ওপেনার এডেন মার্করামকে। ১টি বাউন্ডারির সাহায্যে ২২ বলে ৮ রান করে মাঠ ছাড়েন মার্করাম।

দক্ষিণ আফ্রিকা ১৭ রানের মাথায় ২ উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান কিগান পিটারসেন। তিনি প্রথম বলেই ২ রান নিয়ে খাতা খোলেন। ৯ ওভার শেষে দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোর ১৯/২। বুমরাহ ৫ ওভারে ৪টি মেডেন-সহ মাত্র ২ রানের বিনিময়ে ২টি উইকেট দখল করেছেন।

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ব্যাট করতে নামেন গতদিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান এডেন মার্করাম ও কেশব মহারাজ। ভারতের হয়ে বোলিং শুরু করেন জসপ্রীত বুমরাহ।

ডিন এলগারের কাঁটা তুলে ফেলেছে ভারত। তবে দ্বিতীয় দিনের শুরুতে উইকেট তুলতে না পারলে জোহানেসবার্গ টেস্টের মতো কেপ টাউনেও জাঁকিয়ে বসতে পারে দক্ষিণ আফ্রিকা।

কেননা কিগান পিটারসেন, তেম্বা বাভুমারা আগেই রানের মধ্যে থাকার ইঙ্গিত দিয়েছেন। মার্করামকে তাড়াতাড়ি না ফেরালে তিনিও শিকড় জমাতে পারেন।

তাছাড়া প্রথম ইনিংসে ভারতের হাতে পুঁজি মাত্র ২২৩ রানের। তাই প্রোটিয়ারা প্রথম ইনিংসের নিরিখে বড়সড় লিড নিলে নিশ্চিতভাবেই বিপদে পড়তে হবে টিম ইন্ডিয়াকে। এক্ষেত্রে প্রাথমিক সাফল্যের জন্য শামি-বুমরাহর দিকেই তাকিয়ে ভারত।

ভারতের ২২৩ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম দিনের শেষে ১ উইকেট হারিয়ে ১৭ রান তুলেছে। ভারতের কাছ থেকে জোহানেসবার্গ টেস্ট ছিনিয়ে নিয়ে যাওয়া ডিন এলগার সাজঘরে ফিরেছেন ইনিংসের শুরুতেই।

বুমরাহ তুলে নিয়েছেন তাঁর মূল্যবান উইকেট। আপাতত এডেন মার্করাম ৮ ও নাইটওয়াচম্যান কেশব মহারাজ ৬ রানে অপরাজিত রয়েছেন। ভারতের থেকে এখনও ২০৬ রানে পিছিয়ে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *