ভবিষ্যৎবাণী করলেন ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের ফলাফল নিয়ে

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুটি সিরিজ জয়লাভ করে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর করতে গেছে ভারতীয় দল। এর আগে অস্ট্রেলিয়া এবং ইংল্যান্ডের মতো দেশের বিরুদ্ধে সিরিজ জয়লাভ করেছে আমরা। ঘরের মাঠে টানা ১৪ টেস্ট সিরিজ জয়লাভ করেছে ভারত।

দক্ষিণ আফ্রিকাই একমাত্র দেশ যেখানে ভারত এখনও একটি টেস্ট সিরিজ জিততে পারেনি। ১৯৯২-৯৩ সালে রেনবো নেশনে ভারত তাদের প্রথম সফরের পর থেকে সাতটি টেস্ট সিরিজ খেলেছে। তার মধ্যে ছ’টিতেই জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা ।

একটি ম্যাচে ড্র হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার সাথে। চলতি মাসের ২৬ তারিখে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট ম্যাচ খেলতে নামবে টিম ইন্ডিয়া। চলতি সফর ভারতের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন একাধিক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে কলংকিত ক্রিকেটের অধ্যায় বিরাট কোহলির হাত ধরে শেষ হবে বলে মনে করেন তারা।প্রথমবারের মতো ক্রোটিয়া জয় করে দেশে ফিরবে কোহলি বাহিনী এমনটাই প্রত্যাশা ভারতীয় ক্রিকেট প্রেমীদের।

ভারতীয় প্রাক্তন উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান সাবা করিম দক্ষিণ আফ্রিকা সফর নিয়ে ইতিমধ্যে ভবিষ্যৎবাণী করে ফেলেছেন। তিনি সংবাদ মাধ্যমে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, চলতি সফরে বিরাট কোহলিদের কাছে বড় প্রত্যাশা রয়েছে আমাদের।
টেস্ট ক্রিকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে নতুন ইতিহাস লেখার সুযোগ রয়েছে আমাদের। করিম বিশ্বাস করেন যে, ভারতের রিজার্ভ বেঞ্চ যে রকম শক্তিশালী।

এবং অভিজ্ঞ ক্রিকেটাররাও রয়েছেন সঙ্গে। যে কারণে এ বার দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ভারতর প্রথম টেস্ট সিরিজ জয়ের সম্ভাবনাও বেড়ে গিয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুটি সিরিজ জয়লাভ করে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর করতে গেছে ভারতীয় দল। এর আগে অস্ট্রেলিয়া এবং ইংল্যান্ডের মতো দেশের বিরুদ্ধে সিরিজ জয়লাভ করেছে আমরা। ঘরের মাঠে টানা ১৪ টেস্ট সিরিজ জয়লাভ করেছে ভারত।

এমনকি অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে একেরপর এক ক্রিকেটার ইনজুরিতে পড়লে রিজার্ভ বেঞ্চে বসে থাকা ক্রিকেটারদের নিয়ে সিরিজ জয়লাভ করেছি আমরা। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ভারতের সর্বোচ্চ শক্তিশালী দল গিয়ে পৌঁছেছে ইতিমধ্যে।

ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসে আরো একটি নতুন অধ্যায় রচনা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এই সফরে। সাবা করিম এ বারের টেস্ট সিরিজের ভবিষ্যদ্বাণী করতে গিয়ে ভারতকেই এগিয়ে রেখেছেন। তাঁর মতে, ‘সিরিজের ফল হয় ২-০ হবে অথবা ২-১ হবে (টেস্টে)।

আর ওয়ানডে-তে আমরা অনেক বেশি শক্তিশালী দল।’

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *