ভাগ্য খুলে গেল স্মৃতি মান্ধানার, আইসিসি দিতে চলেছে টি-টোয়েন্টিতে বড় অ্যাওয়ার্ড

মৃতি শ্রীনিবাস মন্ধনা (মারাঠি: स्म्रिती मन्धाना; জন্ম: ১৮ জুলাই, ১৯৯৬) মহারাষ্ট্রের সাংলি এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা ভারতীয় প্রমিলা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। ভারত ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি।

দলে তিনি মূলতঃ বামহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলছেন। এছাড়াও, ডানহাতে মিডিয়াম পেস বোলিংয়ে পারদর্শী স্মৃতি মন্ধনা

মহিলাদের ক্রিকেটে টি-টোয়েন্টি ‘প্লেয়ার অফ দ্য ইয়ার’ পুরস্কারের জন্য চার ক্রিকেটারকে মনোনীত করেছে আইসিসি। এই তালিকায় রয়েছেন ভারতের একজন তারকা মহিলা খেলোয়াড়।

আইসিসি বৃহস্পতিবার ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার ট্যামি বিউমন্ট, ন্যাট সাইভার, আয়ারল্যান্ডের গ্যাবি লুইস এবং ভারতীয় ওপেনার স্মৃতি মান্ধানাকে আইসিসি মহিলা টি-টোয়েন্টি ‘বর্ষের সেরা খেলোয়াড়’-এর জন্য মনোনীত করেছে।

ভারতীয় মহিলা দল এই বছর নয়টি টি টোয়েন্টি ম্যাচের মধ্যে মাত্র দুটি জিতেছে, ওপেনার স্মৃতি মান্ধানা বিশ্বের সেরা তারকাদের একজন। ওই দুটি জয়ের প্রথমটিতে তিনি অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন।

ভারতের তারকা মহিলা ব্যাটার স্মৃতি মান্ধানাকে আইসিসি মহিলাদের টি টোয়েন্টি ‘বর্ষের সেরা খেলোয়াড়’-এর জন্য মনোনীত করার সিদ্ধান্তকে অনেক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞই যথার্থ বলেছেন।

মান্ধনা ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভারতের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন। মোট ১১৯ রান করলেও দলের বাকি ব্যাটারদের কাছ থেকে যথেষ্ট সমর্থন পাননি।

দুই ম্যাচেই ভারতের সর্বোচ্চ স্কোরার ছিলেন তিনি। সামগ্রিকভাবে, স্মৃতি দুটি হাফ সেঞ্চুরি সহ ৩১.৮৭ গড়ে নয়টি ম্যাচে ২৫৫ রান করেছেন।

আইসিসি কর্তৃক মনোনীত মহিলাদের টি-টোয়েন্টি ‘বর্ষের সেরা খেলোয়াড়’-এর জন্য ইংল্যান্ডের দুই ক্রিকেটার অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। ইংল্যান্ডের ওপেনার ট্যামি বিউমন্ট এই বছর টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক এবং বিশ্বের তৃতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক।

তিনটি অর্ধশতক সহ তিনি নয়টি ম্যাচে ৩৩.৬৬ গড়ে ৩০৩ রান করেছেন। ইংল্যান্ডের আরেক ক্রিকেটার, ন্যাট সাইভার, এই বছর তার দলের তিনটি সিরিজ জয়ে মুখ্য ভূমিকা পালন করেছেন।

তিনি ২০২১ সালে টি-টোয়েন্টিতে তৃতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী হিসাবে শেষ করেছেন। সামগ্রিকভাবে, সায়ভার নয়টি ম্যাচে একটি অর্ধশতকের সাহায্যে ১৯.১২ গড়ে ১৫৩ রান করেছেন। একই সময়ে, তিনি ৬.৫১ ইকোনমি রেটে ১০ উইকেটও নিয়েছেন।

আয়ারল্যান্ডের অলরাউন্ডার গ্যাবি লুইসও চলতি বছরে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফর্ম্যাটে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছিলেন, এই বছর টি-টোয়েন্টিতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হয়েছেন। তিনি ১০ টি টি-টোয়েন্টি খেলে ১২৮.৪৫ স্ট্রাইক রেটে একটি শতরান ও একটি অর্ধশতরান সহ ৪০.৬২ গড়ে ৩২৫ রান করেছেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *