ভারতের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে হেরে, হঠাৎ করেই লাল বলের ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন ডি’কক

কুইন্টন ডি কক জোহানেসবার্গে জন্মগ্রহণকারী দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটার। এছাড়াও তিনি ঘরোয়া ক্রিকেটে গটেং এবং হাইভেল্ড লায়ন্সের পক্ষ হয়ে খেলছেন।

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দক্ষিণ আফ্রিকা দলে তিনি উইকেট-কিপার কাম ব্যাটসম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এরপূর্বে তিনি অনূর্ধ্ব-১৯ দলে প্রতিনিধিত্ব করেছেন।

টেস্ট ক্রিকেট থেকে আচমকাই অবসর নিলেন কুইন্টন ডি’কক। বৃহস্পতিবার ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম টেস্টে হেরে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। সেই দিনই টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে নিলেন উইকেটরক্ষক কুইন্টন। সাদা বলের ক্রিকেটে তিনি খেলবেন।

বৃহস্পতিবার দক্ষিণ আফ্রিকা বোর্ড টুইট করে জানায় টেস্ট ক্রিকেট থেকে এই মুহূর্তে অবসর নিচ্ছেন কুইন্টন। টুইটে লেখা হয়, ‘দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেটরক্ষক টেস্ট ক্রিকেট থেকে এখনই অবসর নিচ্ছেন। পরিবারের সঙ্গে বেশি সময় কাটানোর জন্যই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।’

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৫৪টি টেস্ট খেলেছেন ডি’কক। আইপিএল-এ রোহিত শর্মার সতীর্থ দক্ষিণ আফ্রিকা দলকে নেতৃত্বও দিয়েছেন। লাল বলের ক্রিকেটে আন্তর্জাতিক মঞ্চে তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে ৩৩০০ রান।

রয়েছে ৬টি শতরান। উইকেটের পিছনে দাঁড়িয়ে নিয়েছেন ২২১টি ক্যাচ। ১১টি স্টাম্পও করেছেন তিনি।

২০১৪ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট অভিষেক ঘটে তাঁর। সাত বছর টেস্ট খেলেছেন তিনি। সদ্য শেষ হওয়া টি২০ বিশ্বকাপে বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে হাঁটু মুড়ে বসার কথা জানিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা বোর্ড।

কিন্তু ডি’কক রাজি ছিলেন না সেই নির্দেশ মানতে। এর ফলে একটি ম্যাচে বাদ পড়তে হয় তাঁকে। পরবর্তী সময় যদিও বিশ্বকাপের অন্য ম্যাচে মাঠে নামেন তিনি। হাঁটু মুড়ে বসে প্রতিবাদও জানিয়েছিলেন বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *