ভারত কোন লক্ষ্য় নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় যাচ্ছে, জানিয়ে দিলেন কোহলি

২০১৭-১৮, ঠিক এই বছরই বিরাট কোহলি ভারতের সব ফরম্যাটের অধিনায়ক হিসাবে পথচলা শুরু করেছিলেন। তারপর থেকে টিম ইন্ডিয়া ব্যাক-টু-ব্যাক অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট সিরিজ জিতেছে।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ২-১ এগিয়েই শেষ করেছিল। করোনার জন্য ম্যাঞ্চেস্টার শেষ টেস্ট বাতিল না হলে হয়তো অন্যরকম ফল হতে পারত। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা আজও ভারতের বদ্ধভূমি। এখনও পর্যন্ত ভারত এখানে টেস্ট সিরিজ জিততে পারেনি।

এবার ফের মিশন দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে ভারতের পূর্ণাঙ্গ (তিনটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে ও চারটি টি-২০) সিরিজ রয়েছে। আগামী ১৬ ডিসেম্বর কোহলি অ্যান্ড কোং উড়ে যাবেন জোহানেসবার্গে।

আগামী ২৬ ডিসেম্বর সেঞ্চুরিয়নে ‘বক্সিং ডে’-তে শুরু সিরিজের প্রথম টেস্ট। বিদেশে উড়ে যাওয়ার আগে ভারতের টেস্ট ক্যাপ্টেন কোহলি সাংবাদিক বৈঠক করলেন বৃহস্পতিবার। সেখানে তিনি বলে দিলেন ভারত কোন লক্ষ্য় নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় যাচ্ছে।

কোহলি বলেন,”দক্ষিণ আফ্রিকা এমন একটা জায়গা, যেখানে আমরা এখনও সিরিজ জিততে পারিনি। আমরা এবার মোটিভেটেড। এখন আমাদের মানসিকতাই এমন হয়ে গিয়েছ যে, আমরা যে দেশেই খেলতে যাই না কেন, সিরিজ জয়ের জন্যই যাই।

আমরা টেস্ট ম্যাচ জেতার কথা ভেবে আর যাই না। সিরিজ জয়ের লক্ষ্যে যাই। এবারও আমরা সেরাটাই দেব। দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়েই আমরা বুঝতে পেরেছিলামা যে, এবার বিদেশের মাটিতে সিরিজ জিততে পারি।

ইংল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়ায় সবটা উজার করে দিই। নিজেদের সবেচেয়ে ভাল পারফরম্যান্সটা দেওয়া চেষ্টা করেছি। কিছু কিছু ক্ষেত্রে কয়েকটা সেশন খারাপ গিয়েছে। দলে অভিজ্ঞতা রয়েছে।

খেলোয়াড়রা জানে ওই পরিবেশে কীরকম ক্রিকেট খেলতে হবে। জোরে বোলারদের বিরুদ্ধে কীভাবে গোটা দিন ব্যাট করতে হবে সেটাও জানা। দল হিসাবে স্পেশ্যাল কিছু করতে হবে।”

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের জন্য ১৮ সদস্য়ের দল ঘোষণা করে দিয়েছে বিসিসিআই। রয়েছেন বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), প্রিয়ঙ্ক পাঞ্চাল,ময়াঙ্ক আগরওয়াল, চেতেশ্বর পূজারা ,অজিঙ্কা রাহানে, শ্রেয়স আইয়ার ,হনুমা বিহারী, ঋষভ পন্থ (উইকেটকিপার), ঋদ্ধিমান সাহা (উইকেটকিপার), রবিচন্দ্রন অশ্বিন, জয়ন্ত যাদব, ইশান্ত শর্মা, মহম্মদ শামি , উমেশ যাদব, জসপ্রীত বুমরাহ , শার্দুল ঠাকুর এবং মহম্মদ সিরাজ। সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট (৩-৭ জানুয়ারি) জোহানেসবার্গে এবং তৃতীয় টেস্ট (১১-১৫ জানুয়ারি) কেপটাউনে আয়োজন করা হবে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *