রেকর্ড জয়ে ম্যাচ জিতেও বড় ধরনের শাস্তির মুখে টিম ইন্ডিয়া

হরিষে বিষাদ! সেঞ্চুরিয়ন টেস্ট জয়ের আনন্দে এক টুকরো বিষাদ মিশিয়ে দিল স্লো-ওভাররেট। সেঞ্চুরিয়নে প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে সময়মতো ওভার শেষ করতে না পারায় বড়সড় শাস্তির মুখে পড়তে হল টিম ইন্ডিয়াকে।

আইসিসির ম্যাচ রেফারি অ্যান্ড্রু পাইক্রফট জানিয়ে দিলেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নিজেদের ওভার শেষ করতে পারেনি টিম ইন্ডিয়া। নির্ধারিত সময়ে এক ওভার কম বল করেছে ভারত।

তাই আইসিসির রুলবুকের ২.২২ নং ধারা অনুযায়ী ভারতীয় দলের সদস্যদের ম্যাচ ফি’র ২০ শতাংশ কেটে নেয়া হবে। অর্থাৎ আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে হবে ভারতীয় ক্রিকেটারদের।

তবে, ম্যাচ ফি কেটে নেয়াটা ভারতীয় দলকে যত না চিন্তায় রাখছে, তার থেকে অনেক বেশি চিন্তায় রাখছে শাস্তির দ্বিতীয় অংশটি। কারণ, ক্রিকেটারদের ম্যাচ ফি কাটার পাশাপাশি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতের একটি পয়েন্টও কেটে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইসিসি। সেটাই আসল চিন্তার বিষয়।

কারণ, আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে এবারে শুরুটা প্রত্যাশিত হয়নি আগেরবারের রানার্স-আপদের। এই মুহূর্তে ৬৩ পার্সেন্টাইল পয়েন্ট নিয়ে টিম ইন্ডিয়া রয়েছে চতুর্থ স্থানে। ৭ ম্যাচের মধ্যে টিম ইন্ডিয়া জিতেছে ৪টি।

হেরেছে ১টি এবং ২টি ম্যাচ ড্র হয়েছে। এই মুহূর্তে ভারতের পয়েন্ট ৫৩। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে খেলতে হলে প্রথম দুটি স্থানের মধ্যে শেষ করতে হবে ভারতকে।

টিম ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচ রেফারি অ্যান্ড্রু পাইক্রফটের আনা অভিযোগ মেনেও নিয়েছেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। অর্থাৎ ভারত আইসিসির এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আর আবেদন করতে পারবে না। আসলে সেঞ্চুরিয়ন টেস্টে চার পেসার নিয়ে খেলতে নেমেছিল ভারত।

একমাত্র স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিনও খুব বেশি বল করেননি। ফলে ওভার রেট প্রত্যাশার তুলনায় খানিকটা স্লো-ই ছিল। তাই আর আইসিসির সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করেননি বিরাট।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *