রোহিত শর্মার থেকেও বিপজ্জনক ব্যাটসম্যানের কেরিয়ার প্রায় শেষ করে দিচ্ছে নির্বাচকরা

ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে ৩ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচটি আয়োজিত হবে সেঞ্চুরিয়নের মাটিতে। ২৬ শে ডিসেম্বর বক্সিং ডে-এর দিন থেকে এই প্রথম টেস্ট ম্যাচ শুরু হবে।

এই টেস্ট সিরিজে চোট পাওয়া রোহিত শর্মার বদলে একটি ভালো অপশন থাকলেও তাকে দল অন্তর্ভুক্ত করার কথা ভাবেননি নির্বাচকরা। নির্বাচকদের দ্বারা উপেক্ষিত এই ব্যাটসম্যানও রোহিত শর্মার মতোই আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে পারদর্শী।

এখানে বলা হচ্ছে তরুণ তারকা পৃথ্বী শ-এর কথা। রোহিত শর্মার চোটের পর পৃথ্বী শকে দলে না নেওয়া নির্বাচকদের বড় ভুল প্রমাণিত হতে পারে। ফিটনেস এবং ধারাবাহিকতার অভাবের অজুহাতে তাকে আর দলে সুযোগ দেওয়া হয় না।

পৃথ্বী শ-এর জায়গায় নির্বাচকরা ক্রমাগত টেস্ট দলে শুভমান গিলকে বেছে নিচ্ছেন। শুভমান গিল ২০১৮ সালের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে পৃথ্বী শ-এর অধিনায়কত্বে খেলেছেন। কিন্তু এই সফরে গিল-কেও সুযোগ দেননি নির্বাচকরা।

রোহিত শর্মার বয়স এখন ৩৪ বছর এবং নিশ্চিতভাবেই বলা যায় খুব বেশি বছর তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে পারবেন না। তাই আগামী দিনে রোহিতের পরিবর্তে টিম ইন্ডিয়ার টেস্টে একজন নতুন ওপেনারের প্রয়োজন হবে যিনি রোহিতের মতোই আগ্রাসী।

ভবিষ্যতে এই দায়িত্ব সামলাতে পারেন তরুণ ব্যাটসম্যান পৃথ্বী শ। ঘরোয়া ও আইপিএলে তিনি যেমন আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলেন তা ভারতীয় দলের কাছে সম্পদ হয়ে উঠতে পারে।

প্রাক্তন ওপেনার বীরেন্দ্র সেওবাগ এবং কিংবদন্তি সচীন টেন্ডুলকারের স্মৃতি যেন খানিকটা মনে করিয়ে দেয় পৃথ্বী শ-এর আগ্রাসী ব্যাটিং। টেন্ডুলকার এবং সেওবাগের মতোই মেজাজে ব্যাট করেন পৃথ্বী।

ফিটনেস সমস্যা কাটিয়ে উঠলে রোহিতের জায়গায় তিনি বিকল্প হয়ে উঠতে পারেন। কারণ অপর অপশন শুভমান গিল অনেকটাই রক্ষণাত্মক ব্যাটার।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *