শট বিশ্ব খ্যাতি অর্জন করেছেন ভারতীয় ৩ ব্যাটার

ভারতীয় ক্রিকেটে একের পর এক মহাতারকার আবির্ভাব ঘটেছে। সুনীল গাভাস্কার থেকে শুরু করে শচীন টেন্ডুলকার এবং বর্তমান সময়ে বিরাট কোহলি থেকে শুরু করে কে এল রাহুল, যেন সময়ের ধারায় নিয়মমাফিক একের পর এক ক্রিকেটার উঠে এসেছেন আন্তর্জাতিক প্রাঙ্গণে।

কেউ নিজেদের ব্যাটিং স্টাইল কিংবা বোলিং স্টাইলের জন্য বিখ্যাত হয়েছেন ক্রিকেটমহলে। আবার কেউবা নিজের খেলার মাধ্যমে বিশ্ববরেণ্য হয়েছেন। কোন কোন ব্যাটসম্যানের শট দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে ক্রিকেটপ্রেমীদের।

যা একমাত্র তাদের ব্যাট থেকেই মনোরম মনে হতো। আজ তিন ভারতীয় ব্যাটসম্যান সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক, যারা তাদের শটের জন্য সর্বদা আলোচিত হয়ে থাকেন-

১. শচীন টেন্ডুলকার: বিশ্ব ক্রিকেটে এক বিরাট ব্যক্তিত্ব শচীন টেন্ডুলকার। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে রেকর্ডের পাহাড় গড়ে গেছেন তিনি। জীবনের বেশিরভাগ সময়টাই ভারতীয় দলের জন্য পাঠিয়েছেন ২২ গজের প্রাঙ্গণে।

ভারতীয় ক্রিকেটে দিয়ে গেছেন নিজের বিধ্বংসী সব ইনিংস। ভারতীয় ক্রিকেটকে নিয়ে গিয়েছিলেন অন্য মাত্রায়। শচীন টেন্ডুলকার ‘স্টেট ড্রাইভ’ শর্ট এর জন্য পরিচিত ছিলেন বিশ্ব ক্রিকেটে। ১৯৯৬ সালের বিশ্বকাপে একের পর এক বলে স্টেট ড্রাইভ মেরে তাক লাগিয়েছিলেন বিশ্ব ক্রিকেটে।

২. মহেন্দ্র সিং ধোনি: ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে সফলতম অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। ভারতীয় ক্রিকেটে দিয়ে গেছেন তিনটি আইসিসি শিরোপা। বিশ্ব ক্রিকেটে তিনিই একমাত্র অধিনায়ক যিনি আইসিসি আয়োজিত তিনটি শিরোপা অর্জন করেছেন।

মহেন্দ্র সিং ধোনি বোলারদের সবচেয়ে ঘাতক বল ‘ইয়র্কার’ কে মাঠের বাইরে পাঠাতে কুন্ঠিত বোধ করতেন না। তার ইয়র্কার বলে ছক্কা মারার ভঙ্গি রীতিমতো বিষ্ময় সৃষ্টি করেছিল ক্রিকেটমহলে। যা ‘হেলিকপ্টার’ শট নামে বিশ্বখ্যাতি লাভ করে।

৩. বিরাট কোহলি: বর্তমানে ভারতীয় ক্রিকেটে সবচেয়ে ঘাতক ব্যাটসম্যান হলেন বিরাট কোহলি। সবচেয়ে কম ইনিংস খেলে সর্বাধিক রান সংগ্রহ করা ভারতীয় ক্রিকেটার তিনি। বিশ্ব ক্রিকেটে সবচেয়ে কম ইনিংস খেলে সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি করা ব্যাটসম্যান তিনি।

কিন্তু এই খ্যাতি অর্জন করতে কঠিন সাধনার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে তাকে। বিরাট কোহলির ‘কাভারড্রাইভ’ শট দৃষ্টি আকর্ষণ করবেই যেকোন ক্রিকেটপ্রেমীর। আর তিনি তার এই শটের জন্য বিশ্ব ক্রিকেটে পরিচিত।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *