সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে চূড়ান্ত হল আসন্ন আইপিএল মাঠে গড়ানোর তারিখ

করোনা অতিমারির জন্য ২০২০-র আইপিএল হয়েছিল সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাসে। গত বারও আইপিএল-এর দ্বিতীয় পর্ব সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে করতে হয় করোনার কারণেই। এ বার ভারতের মাটিতে পুরো আইপিএল-ই আয়োজন করতে মরিয়া বিসিসিআই।

কিন্তু কবে আইপিএল শুরু হবে, সেটাই এখন সমর্থকদের কাছে বড় প্রশ্ন। শনিবার এই প্রশ্নের উত্তর দিলেন বোর্ড সচিব জয় শাহ। জানালেন, মার্চের শেষের দিকেই আইপিএল শুরু করার ভাবনা রয়েছে তাঁদের।

শাহ বলেছেন, “মার্চের শেষ সপ্তাহে আইপিএল শুরু করতে চাই আমরা। মে মাসের শেষ পর্যন্ত তা চলবে। বেশির ভাগ দলের মালিকরাই ভারতে প্রতিযোগিতা আয়োজন করার পক্ষপাতী। এমনকি বোর্ডও চায় দেশের মাটিতে আইপিএল আয়োজন করতে।”

শোনা গিয়েছে, ২৭ মার্চ প্রতিযোগিতা শুরু হতে পারে। তবে অনেকে বলছেন, তা একটু পিছিয়ে ২ এপ্রিলও শুরু হতে পারে। শাহের সংযোজন, “ভারতে আইপিএল আয়োজন করার সব রকম চেষ্টা করব আমরা।

তবে অতীতের মতোই ক্রিকেটারদের স্বাস্থ্য এবং নিরাপত্তা নিয়ে কোনও আপস করবে না বিসিসিআই। করোনা পরিস্থিতি এবং করোনার নতুন রূপের কথা মাথায় রেখে বিকল্প পরিকল্পনা ছকে রাখছি আমরা।

আগামী ১২ এবং ১৩ ফেব্রুয়ারি আইপিএল-এর নিলাম হবে। তার আগেই প্রতিযোগিতা কোথায় হবে তা চূড়ান্ত করে ফেলব আমরা।” ২০ জানুয়ারি আইপিএল-এ ক্রিকেটারদের নিলামের জন্য নথিভুক্ত করার শেষ দিন ছিল।

নতুন দু’টি দল আমদাবাদ এবং লখনউ ইতিমধ্যেই তাদের বেছে নেওয়া তিন ক্রিকেটারের নাম জানিয়ে দিয়েছে। শনিবারই আইপিএল নিলামের জন্য মোট ক্রিকেটারের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

মোট ১২১৪ জন ক্রিকেটার রয়েছেন। এর মধ্যে ভারতের জাতীয় দলের হয়ে খেলা ক্রিকেটার ৬১ জন, বিদেশি এবং জাতীয় দলের হয়ে খেলা ক্রিকেটার ২০৯ জন, সহকারী দেশগুলি থেকে ৪১ জন, দেশের হয়ে খেলেননি কিন্তু আগের আইপিএল-এর অংশ ছিলেন এমন ক্রিকেটার ১৪৩ জন, দেশের হয়ে খেলেননি এমন ক্রিকেটার ৬৯২ জন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *