সেই দিন অবসরের চিন্তাভাবনা করেছিলেন সহ অধিনায়ক কে এল রাহুল

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তিন টেস্টের সিরিজে সহ-অধিনায়কের অভিষেক হতে চলেছে ভারতীয় ক্রিকেট দলের ওপেনার কে এল রাহুলের।

চোট প্রাপ্ত রোহিত শর্মার পরিবর্তে তাকে দলের সহ-অধিনায়ক করা হয়েছে। হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে সফর থেকে সরে এসেছেন রোহিত।

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাওয়া বিরাট কোহলির দলে রাহুলই ছিলেন সেরা ফিট, যাকে সহ-অধিনায়কের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল।

কর্ণাটকের বাসিন্দা, এই ব্যাটসম্যান ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে চার টেস্টের আট ইনিংসে ৩১৫ রান করেছিলেন। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শুরু হতে এখন বাকি দুই দিন।

এমন পরিস্থিতিতে টেস্ট ক্রিকেট খেলার কথা জানালেন কেএল রাহুল।

২০১৪ সালে কে এল রাহুলের টেস্ট অভিষেক হয়। তিনি এখন পর্যন্ত ৪০টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন যাতে তার ব্যাট থেকে ২৩২১ রান করা হয়েছে।

এ সময় তিনি ছয়টি সেঞ্চুরি ও ১২টি হাফ সেঞ্চুরি করেন। টেস্টে তার গড় ৩৫.১৬। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্ট সহ-অধিনায়কত্ব নেওয়ার অর্থ সমস্ত ফর্ম্যাটে খেলা রাহুলকে ভবিষ্যতের অধিনায়ক হিসাবে বিবেচনা করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, টেস্ট ক্রিকেটে রাহুল দলের বাইরে চলে যাচ্ছেন। কিন্তু ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চারটি টেস্ট ম্যাচে তিনি যেভাবে পারফরম্যান্স করেছেন তা তাকে লাইফলাইন দিয়েছে।

ট্রেন্ট ব্রিজে খেলা প্রথম ম্যাচে রাহুল ৮৪ ও ২৬ রান করেন। এরপর লর্ডস টেস্টে প্রথম ইনিংসে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করেন তিনি।

রাহুল আরও বলেছিলেন যে তিনি ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পারফরম্যান্সের আশা করছেন না, যদি না পরিস্থিতি দ্রুত পরিবর্তন হয়।

বিসিসিআই একটি ভিডিও শেয়ার করেছে। যেখানে কে এল রাহুল বলছেন যে, “ছয় সাত মাস বা এক বছর আগে আমি কখনও ভাবিনি যে আমি আবার ভারতের হয়ে টেস্ট ক্রিকেট খেলব,

পরিস্থিতি দ্রুত বদলে গেছে এবং আমি খুব খুশি যে আমি এই সফরে সহ-অধিনায়ক হিসেবে এত কিছু পেয়েছি। দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

আমি আমার সেরাটা দিতে আগ্রহী।” বক্সিং ডে টেস্ট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “আমার তিক্ত ও মধুর স্মৃতি রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ায় বক্সিং ডে টেস্টে আমার অভিষেক হয়েছিল,

কিন্তু সেটা ভালো হয়নি। আমি তখন দল থেকে আমার জায়গা হারিয়ে ফেলেছিলাম, ভেবেছিলাম এটি আমার জন্য শেষ,

আমি অনুভব করি যে আমি খেলার প্রতি আমার দৃষ্টিভঙ্গিতে আরও ভারসাম্যপূর্ণ হয়েছি। ২০১৪ সালে আমার আত্মপ্রকাশের সময় থেকে এবং ২০১৮ সালে আমি যেভাবে খেলেছিলাম তার থেকে আমি অনেক পরিবর্তন করেছি।”

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *