সেঞ্চুরিয়ানে ভারতীয় নেটিজেনদের কড়া জবাব দিলেন মোহাম্মদ শামি

টি-২০ বিশ্বকাপে হারের পর ভারতীয় নেটিজেনরা কাঠগড়ায় তুলেছিলেন মোহাম্মদ শামিকে। জাত-ধর্ম নিয়ে অশালীন বাক্যে চড়াও হয়েছিলেন তার উপর। ভারতীয় দল থেকে ছাঁটাই করে পাকিস্তানে পাঠিয়ে দেওয়ার দাবি ছিল তাদের। তিন মাস না যেতেই সেই শামির প্রশংসায় মেতেছেন ভারতীয় সমর্থকরা। অবশ্য জবাবটা দিয়েছেন বলেই প্রসংশায় ভাসছেন শামি।

আগের দিন তার বোলিং তোপেই সেঞ্চুরিয়ান টেস্টে লিড পেয়েছে ভারত। একই দিনে দারুণ দুটি দারুণ মাইলফলক স্পর্শ করেছেন শামি। যার একটি ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথমবারের মতো করেছেন এ ভারতীয় পেসার।

প্রথম ইনিংসে ৩২৭ রান করেই ১৩০ রানের লিড পেয়েছে ভারত। যার মূল কৃতিত্বই শামির। প্রোটিয়াদের গুঁড়িয়ে দিতে শামি ৫ উইকেট নেন ৪৪ রানের খরচায়।

এইডেন মার্ক রাম ও কিগান পিটারসেনকে বোল্ড করে দিয়েছেন। আর টেম্বা বাভুমা, উইয়ান মুল্ডার ও কাগিসো রাবাডাকে পরিণত করেন উইকেটরক্ষকের ক্যাচে।

এ ফাইফার তুলে নেওয়ার পথে টেস্ট ক্যারিয়ারের ২০০তম উইকেট তুলে নিলেন শামি। তিন বছর আগে এই সেঞ্চুরিয়ানেই কেশভ মহারাজকে উইকেটরক্ষকের ক্যাচে পরিণত করে নিজের শততম উইকেটটি পেয়েছিলেন তিনি। একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে একই মাঠে ক্যারিয়ারের ১০০ ও ২০০তম টেস্ট উইকেট নেওয়ার কীর্তি বিশ্বের আর কোনো বোলারের নেই।

ভারতের ১১তম বোলার হিসেবে টেস্টে ২০০ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করেন শামি। আর পেসারদের মধ্যে পঞ্চম। শামির আগে ভারতের হয়ে টেস্টে এ কৃতিত্ব অর্জন করেছেন অনিল কুম্বলে, কপিল দেব, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, হরভজন সিং, ইশান্ত শর্মা, জাহির খান, বিষেণ সিং বেদি, চন্দ্রশেখর, শ্রীনাথ ও রবীন্দ্র জাদেজা।

কপিল, ইশান্ত, জাহির ও শ্রীনাথের পর শামি হলেন ভারতের পঞ্চম পেসার যিনি এই মাইলফলক স্পর্শ করলেন। ক্যারিয়ারের ৫৫তম টেস্টে ২০০ উইকেট নিলেন শামি। কপিল দেব ৫০তম টেস্টে এবং শ্রীনাথ ৫৪তম টেস্টে এমন কৃতিত্ব অর্জন করেছিলেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *