সৌরভ-বিরাট সম্পর্কের টানাপোড়েন অব্যাহত, জয়ের অভিনন্দন জানালেও একটি বারও নেননি কোহলির নাম

বিরাট কোহলির নেতৃত্বে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে ভারতীয় দল। সেঞ্চুরিয়নে খেলা প্রথম টেস্ট ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১১৩ রানে হারিয়েছে তারা। সেঞ্চুরিয়নে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্ট ম্যাচ জেতা এশিয়ার একমাত্র দল হয়ে উঠেছে কোহলির ভারত।

এই জয়ের ফলে বিরাট কোহলিই এখন একমাত্র ভারতীয় অধিনায়ক যিনি দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে দুটি টেস্ট ম্যাচ জিতেছেন। এর আগে কোনো ভারতীয় অধিনায়ক দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ১টির বেশি টেস্ট ম্যাচ জিততে পারেননি।

কোহলির আগে, মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং রাহুল দ্রাবিড়ের নেতৃত্বে ভারত দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট ম্যাচ জিতেছিল। এই দুর্দান্ত জয়ের পর বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি ভারতীয় দলকে জয়ের জন্য অভিনন্দন জানালেও বিরাট কোহলির নাম কিন্তু নেননি।

সৌরভ গাঙ্গুলী তার টুইটে অভিনন্দন জানিয়েছেন ইতিহাস সৃষ্টিকারী ভারতীয় দলকে কিন্তু সেই পোস্টে কোথাও টেস্ট অধিনায়কের নাম নেননি। একই সময়ে, প্রাক্তন কোচ রবি শাস্ত্রী দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সেঞ্চুরিয়ান টেস্ট ম্যাচে দুর্দান্ত জয়ের জন্য ভারতীয় দল এবং বিরাট কোহলি উভয়কেই অভিনন্দন জানিয়েছেন।

এই সেঞ্চুরিয়ন মূলত এশিয়ার দলগুলির জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার দুর্গ হিসেবে বিবেচিত হয়। সৌরভ টুইটারে লিখেছেন, ‘ভারতীয় দলের দুর্দান্ত জয়। ফলাফলে মোটেও অবাক নই।

এই সিরিজে ভারতকে হারানো খুবই কঠিন হবে। এটি করতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে তার সীমা ছাড়িয়ে পারফর্ম করতে হবে। নতুন বছর উপভোগ করুন।’

কোহলির অধিনায়কত্বের রেকর্ড সম্পর্কে কথা বলতে গেলে, বিদেশে অধিনায়ক হিসাবে এটি ছিল তার ৩৫ তম টেস্ট। তারা ১৬ টি ম্যাচে দল জিতেছে এবং ১৩ টিতে হারতে হয়েছে তাদের। কোহলির নেতৃত্বে ছয়টি টেস্ট ম্যাচও ড্র-ও হয়েছে।

তার সামগ্রিক রেকর্ডের দিকে তাকালে দেখা যাবে বিরাট ৬৭ টি ম্যাচে ভারতীয় দলের অধিনায়কত্ব করেছেন। এই সময়ে ভারত জিতেছে ৪০টি ম্যাচ। 16 ম্যাচে হেরেছে এবং ১১ টি ম্যাচ ড্র হয়েছে।

বিরাট কোহলির নেতৃত্বে টিম ইন্ডিয়া ২০১৮ সালে জোহানেসবার্গ টেস্ট জিতলেও সিরিজ জেতা হয়নি এবং এখন সে সেঞ্চুরিয়নেও দলকে জিতিয়েছে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *