হঠাৎ করেই নিষিদ্ধ করা হল আইপিএল

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ, যা স্পন্সরজনিত কারণে আনুষ্ঠানিকভাবে ভিভো ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ নামে পরিচিত, হচ্ছে ভারতের একটি প্রতিযোগিতামূলক টুয়েন্টি২০ ক্রিকেট লিগ।

এটি প্রতি বছর সাধারণত এপ্রিল ও মে মাসে ভারতের কয়েকটি নির্দিষ্ট শহর এবং রাজ্যের প্রতিনিধিত্বকারী দলের মধ্যে আয়োজিত হয়

ক্রিকেট জগতের সবচেয়ে বড় লীগ ভারতীয় প্রিমিয়ার লিগ। এর জনপ্রিয়তা এতই বেশি যে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের চেয়েও এর জনপ্রিয়তা কোন অংশে কম নয়।

পৃথিবীর প্রায় প্রত্যেকটি দেশের আইপিএল খেলা সম্প্রচারণ করা হয়। এর জনপ্রিয়তা এতই বেশি যে, ক্রিকেট জগতের যে কোন ক্রিকেটার একবার হলেও আইপিএল খেলতে চায়।

বিশ্বের সব তাবড় তাবড় ক্রিকেটার নিয়ে আয়োজন করা হয় ভারতীয় প্রিমিয়ার লিগের খেলা। যেখানে কোটি কোটি টাকার সাথে বিশ্বে পরিচিত হওয়ার এক উজ্জ্বল সম্ভাবনা থাকে।

কিন্তু এবার আইপিএল সম্প্রচারণ নিষিদ্ধ ঘোষণা করল আফগানিস্তান। কয়েকদিন আগে আফগানিস্তানে তালেবান শাসন কায়েম হয়েছে। বর্তমানে সেখানে নানা ধরনের বাধানিষেধের মধ্য দিয়ে দিনযাপন করতে হচ্ছে সাধারণ নাগরিকদের।

একের পর এক অবাক করা নিয়ম লাগু হচ্ছে তাদের উপর। এবার আইপিএল দেখা থেকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হলো আফগানিস্তানের ক্রিকেটপ্রেমীদের।

অথচ আইপিএলে আফগানিস্তানের মোহাম্মদ নবী, রশিদ খানের মতো ক্রিকেটাররা অংশগ্রহণ করে থাকে।

আইপিএল নিষিদ্ধ ঘোষণা করার পেছনে কয়েকটি কারণ জানিয়েছে তালেবানরা। আফগানিস্তানের মিডিয়া সম্প্রচার আধিকারিক এম ইব্রাহিম মোমান্দ জানিয়েছেন,

আইপিএল সম্প্রচার বন্ধ করার পেছনে প্রধান কারণ হিসেবে তালেবানরা জানিয়েছে আইপিএলে মেয়েদের নাচ।

এই মেয়েদের নাচকে ইসলামবিরোধী বলে মনে করে তালেবানরা। তাছাড়া আইপিএলে চিয়ারলিডার হিসেবে মেয়েদের উপস্থিতি আফগান তালেবান পছন্দ করছেন না।

তাছাড়া স্টেডিয়ামে চার বা ছয় হওয়ার সাথে সাথে ছেলেমেয়েদের আনন্দ প্রকাশের ধরন পছন্দ নয় আফগানি তালিবানদের। এইসব কারণে সেদেশে আইপিএল নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*