দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে ৬ মণ কয়েন জমিয়েছেন খাইরুল ইসলাম খবির (৪৬) নামে এক সবজি বিক্রেতা।

মাগুরার মহম্মদপুর বাজারের সবজি বিক্রি করে এসব কয়েন সংগ্রহ করেছেন তিনি। কিন্তু কয়েকগুলো বিক্রি করতে না পেয়ে আর্থিক ভাবে চরম অসুবিধায় পড়েছেন এই ব্যবসায়ী।

জানা গেছে, পুরনো দিনের পাঁচ পয়সা, দশ পয়সার কয়েনসহ সব মিলিয়ে প্রায় ৬০ হাজার টাকা মূল্যের কয়েক রয়েছে এখানে। সঞ্চয়ের উদ্দেশ্যে এসব কয়েন জমালেও এখন এগুলো নিয়ে ভোগান্তিতে পড়েছেন এই ব্যবসায়ী।

এ প্রসঙ্গে খবির বলেন, তার ব্যবসার মূলধনের চার ভাগের দুই ভাগই কয়েনের মধ্যে আটকে রয়েছে। কয়েনগুলো নিয়ে তিনি বিভিন্ন বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে গেলেও বিপুল পরিমাণ এ কয়েন নিতে চাচ্ছেন না কেউ। ফলে পাঁচ সদস্যের সংসার চালাতে হিমসীম খেতে হচ্ছে তাকে।

মাগুরা সোনালী ব্যাংকের সহকারী জেনারেল ম্যানেজার (এজিএম) রশিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি তার জানা নাই। তবে ওই ব্যবসায়ী যদি ব্যাংক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেন, তাহলে বিষয়টিতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

খবির বলেন, তিনি প্রায় ২৫ বছর ধরে মহম্মদপুর বাজারে সবজির ব্যবসা করছেন। সে সুবাদে তার কাছ থেকে অনেকেই বিভিন্ন অংকের কয়েন দিয়ে সবজি ক্রয় করে নিয়ে যান। তিনি এসব কয়েন প্রথমে সঞ্চয়ের জন্য মাটির ব্যাংকে গুছিয়ে রাখতেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.